বৃহস্পতিবার ৮ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

১১০০ শ্রমিক পেলেন বকেয়া ১৮ কোটি টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২ | প্রিন্ট

১১০০ শ্রমিক পেলেন বকেয়া ১৮ কোটি টাকা

১১০০ শ্রমিক পেলেন বকেয়া ১৮ কোটি টাকা

-প্রতিনিধি

বাংলাদেশ রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকা কর্তৃপক্ষ বেপজার উদ্যোগে দীর্ঘ আড়াই বছর পরে ঢাকা ইপিজেডে অবস্থিত একটি বন্ধ কারখানার প্রায় ১১৩১ শ্রমিকের বকেয়া প্রায় সাড়ে ১৮ কোটি টাকার পাওনা বুঝিয়ে দেওয়া হলো। আজ সোমবার সাভারে ঢাকা ইপিজেডের অডিটরিয়ামে এ ওয়ান বিডি লিমিটেড নামের বন্ধ হওয়া কারখানার প্রায় সাড়ে ১১০০ শ্রমিকের এই পাওনা পরিশোধের কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়। এ সময় সেই কারখানার আট শ্রমিককে টাকার প্রতীকী হিসেবে পে অর্ডার তুলে দেওয়া হয়।

ঢাকা ইপিজেডের নির্বাহী পরিচালক আব্দুস সোবাহান উপস্থিত থেকে তাদের হাতে এই প্রতীকী পে অর্ডার তুলে দেন।

এ ছাড়া প্রায় এক হাজার শ্রমিকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে বকেয়া পাওনাদি জমা দিয়েছে ঢাকা ইপিজেড। বাকি শ্রমিকরা প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দিলে তাদের বকেয়া পাওনা ব্যাংক অ্যাকাউন্টে জমা দেওয়া হবে।

নির্বাহী পরিচালক আব্দুস সোবাহান বলেন, ২০২০ সালের এপ্রিলে ঢাকা ইপিজেডে অবস্থিত এ ওয়ান বিডি লিমিটেড নামের একটি কারখানা বন্ধ ঘোষণা করে। এ সময় কারখানায় প্রায় ১১৩১ শ্রমিক তাদের বকেয়া পাওনা বুঝে পাননি। পরে বিভিন্ন সময় শ্রমিকরা আন্দোলন করলেও তাদের আশ্বস্ত করা হয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় এ ওয়ান কারখানাটি দীর্ঘ প্রক্রিয়া শেষে নিলামের মাধ্যমে সুইডেনভিত্তিক প্রতিষ্ঠানের কাছে প্রায় ৪৩ কোটি ২০ লাখ টাকায় বিক্রি করা হয়। পরে সেখান থেকে শ্রমিকদের পাওনা প্রায় সাড়ে ১৮ কোটি টাকা পরিশোধের উদ্যোগ নেয় ইপিজেড। শ্রমিকদের তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে এই বকেয়া পরিশোধ করা হচ্ছে। এ ছাড়া নতুনভাবে কিনে নেওয়া প্রতিষ্ঠানটিতে অন্তত আড়াই হাজার শ্রমিকের কর্মসংস্থান হবে।

দীর্ঘদিন পরে হলেও শ্রমিকরা তাদের বকেয়া পেয়ে আনন্দিত। বন্ধ হওয়া সেই কারখানার শ্রমিক আব্দুর রশিদ বলেন, ‘আমি আমার পাওনা টাকা বুঝে পেয়েছি। আমি খুবই আনন্দিত। বেপজার প্রতি আমাদের আস্থা ছিল। তাই আমরা বুঝে পেয়েছি। ‘

আরেক শ্রমিক আঁখি আক্তার বলেন, ‘কারখানা যখন বন্ধ হয়ে যায়, তখন খুব আতঙ্কে ছিলাম। এই টাকা আর পাব কি না, এই নিয়ে। কিন্তু বেপজা কর্তৃপক্ষ বারবার আশ্বস্ত করছে। আমরা খুশি যে আমার পাওনা টাকা বুঝে পাইছি। ‘

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৫:১১ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২

dhakanewsexpress.com |

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
মোঃ মাসুদ রানা হানিফ সম্পাদক