জনপ্রিয় সংবাদ

x

সেরা ওয়ার্ডের জন্য প্রতি বছর মেয়র অ্যাওয়ার্ড ও মুজিব বর্ষ অ্যাওয়ার্ড প্রদানের ঘোষণা দিলেন ডিএনসিসি মেয়র

মঙ্গলবার, ৩০ এপ্রিল ২০১৯ | ২:০১ পূর্বাহ্ণ | 58 বার

সেরা ওয়ার্ডের জন্য প্রতি বছর মেয়র অ্যাওয়ার্ড ও মুজিব বর্ষ অ্যাওয়ার্ড প্রদানের ঘোষণা দিলেন ডিএনসিসি মেয়র
সেরা ওয়ার্ডের জন্য প্রতি বছর মেয়র অ্যাওয়ার্ড ও মুজিব বর্ষ অ্যাওয়ার্ড প্রদানের ঘোষণা দিলেন ডিএনসিসি মেয়র

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) সেরা ওয়ার্ডের জন্য এখন থেকে প্রতি বছর মেয়র অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হবে। তাছাড়া সর্বোত্তম নাগরিক সেবা প্রদানকারী ওয়ার্ডের জন্য ২০২০ সালে দেয়া হবে মুজিব বর্ষ অ্যাওয়ার্ড। মশক নিয়ন্ত্রণ, পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমসহ অন্যান্য নাগরিক সেবা প্রদানে উৎসাহ বাড়াতে এই পুরষ্কার দেয়া হবে।

আজ বেলা সাড়ে ১১টায় গুলশানস্থ ডিএনসিসির নগর ভবনে “ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া রোগের বাহক এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে করণীয়” শীর্ষক এক মতবিনিময় সভায় ডিএনসিসির কাউন্সিলরবৃন্দ, ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধের সাথে যুক্ত বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি সংস্থা, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, বিভিন্ন সোসাইটির নেতৃবৃন্দসহ, বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিনিধি উপস্থিতিতে মেয়র এই ঘোষণা দেন।

মেয়র বলেন, ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধে জনসচেতনতার বিকল্প নেই। এ লক্ষ্যে ডিএনসিসির প্রতিটি অঞ্চল ও ওয়ার্ডে জনগণকে সম্পৃক্ত করে মতবিনিময়, অবহিতকরণ সভা ও প্রচারণা চালানো হবে। সামাজিক গণমাধ্যমসহ সকল গণমাধ্যমে সচেতনতা বাড়াতে ইতোমধ্যে প্রচারণা চালানো হচ্ছে। তাছাড়া জনগণকে সচেতন করার লক্ষ্যে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের মাধ্যমে প্রচারাভিযান শুরু করা হবে। প্রতিটি অঞ্চলে র‍্যালি, মশক কর্মীদের উদ্বুদ্ধকরণ, ইমামদের মাধ্যমে জনগণকে সচেতন করা, কমিউনিটি সেন্টারসহ বিভিন্ন পাবলিক প্লেসেও প্রচারণা চালানো হবে। মানুষকে সচেতন করার জন্য মেয়র গণমাধ্যম কর্মীদের বিশেষ সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন।

ডিএনসিসির নাগরিকদের উদ্দেশে মেয়র বলেন, ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধে ডিএনসিসির পাশাপাশি জনগণ এগিয়ে আসলে সমস্যার সমাধান হয়ে যায়।

মতবিনিময় সভায় আমন্ত্রিত অতিথি লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, “ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া নিয়ন্ত্রণে শতকরা ৯০ ভাগ কাজ জনগণের। মেয়রকে সবাই সহযোগিতা করলে এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে রাখা যাবে। আমাদের তরুন সমাজসহ সবাইকে এতে সম্পৃক্ত করতে হবে”। ডেঙ্গু ও চিকুঙ্গুনিয়ার বিষয়ে জনসচেতনতা বাড়াতে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়বৃন্দ ডিএনসিসির পাশে থাকবেন বলে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক আকরাম খান মতবিনিময় সভায় জানান।

মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে চিত্রশিল্পী মনিরুজ্জমান, কীটতত্ত্ববিদ ড. মঞ্জুর আহমেদ চৌধুরী, মশা গবেষক অধ্যাপক কবিরুল বাশার, রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের পরিচালক অধ্যাপক মিরজাদা সেবরিনা ফ্লোরা, গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, ইস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক শহীদ আখতার হোসেন, ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আবদুল হাই, প্যানেল মেয়র জামাল মোস্তফা, কাউন্সিলর দেওয়ান আবদুল মান্নান, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোমিনুর রহমান মামুন প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

টাকা পয়সা ছাড়াই খাওয়া যায় পুষ্পদাম রেস্টুরেন্টে

Development by: webnewsdesign.com