জনপ্রিয় সংবাদ

x



সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায়

সীমানা বিরোধে মারধর-ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ

বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৫:৫৬ পিএম | 47 বার

সীমানা বিরোধে মারধর-ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ
সীমানা বিরোধে মারধর-ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধের জের ধরে নির্মানাধীন স্থাপনা ভাংচুর কাজে বাঁধা প্রদান, মারধর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। উপজেলার পঞ্চক্রোশী ইউনিয়নের শাহিকোলা গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। এ ঘটনার প্রতিকার চেয়ে উল্লাপাড়া মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগী পরিবার।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায় ওই গ্রামের আলহাজ্ব আবু মুসার ছেলে নাজমুল বারীর সাথে প্রতিবেশী শামিম হোসেন গং দীর্ঘদিন যাবৎ বাড়ির সীমানা নিয়ে বিবাদের পায়তারা করে আসছিল। গত ৫ মাস আগে নাজমুল হোসেন তার বাড়ির নতুন স্থাপনা নির্মান কাজ শুরু করে। ৭৫ ভাগ কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর প্রতিবেশী শামিম হোসেন তার লোকজন নিয়ে এসে উদ্দেশ্য প্রনোদিত ভাবে নির্মাণাধীন  কাজে বাধা প্রদান করে। পরে গ্রাম প্রধানগন উল্লাপাড়া পৌরসভার সারবেয়ার ও স্থানীয় সারবেয়ার (আমিন) দ্বারা যৌতভাবে মাপ দিয়ে বাড়ির সিমানা নিধারণ করে দেয়। পুনরায় গত ৭ সেপ্টেম্বর বাড়ির নির্মাণ কাজ শুরু করলে শামিম হোসেন পৌর সরবেয়ার ও গ্রাম্যপ্রধানদের বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে আবারো তার সন্ত্রাসী বাহিনীকে নেতৃত্বে দিয়ে লাঠি সোঁটা ও দেশিও অস্ত্র নিয়ে বাড়িতে হামলা করে ভাংচুর, লুটপাট ও বাড়ির লোকজন সহ নির্মাণ শ্রমিকদের মারধর করে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয়।



বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নাজমুল বারী নিরুপায় হয়ে উল্লাপাড়া মডেল থানায় ১১ জানের নাম উল্লেখ করে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযুক্তরা হলেন শামিম হোসেন (৩২),মজনু মিয়া (২৬),হামিদ (৩৮),আব্দুল মজিদ (৩৫),শাহিদ আকন্দ (২৭),কোবাদ হোসেন (৭০), আব্দুল হামিদ (৩৮),আব্দুল কাদের (৪৫),আব্দুল মোমিন (৪০),আশরাফুল ইসলাম (৩০),শীতল আকন্দ (৮৫), রুবেল হোসেন (২৩)। ভুক্তভোগীরা জানান এই নামিক অভিযুক্তরা  তাদের ভয়ভীতি প্রদর্শন ও প্রতিনিয়ত প্রাণ নাশের হুমকি দিচ্ছে।

এ ব্যাপারে উল্লাপাড়া মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ দেওয়ান কৌশিক আহম্মেদ জানান অভিযোগ পত্র পেয়েছি। তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

250

Development by: webnewsdesign.com