সিলেট নগরীর প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসকের অবহেলায় এক মহিলার মৃত্যু

শনিবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০২০ | ১২:৫৯ অপরাহ্ণ | 17 বার

সিলেট নগরীর প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসকের অবহেলায় এক মহিলার মৃত্যু
সিলেট নগরীর প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসকের অবহেলায় এক মহিলার মৃত্যু

সিলেট নগরীর প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসকের অবহেলা এক মহিলার মৃত্যু হয়েছে । ঘটনাটি ঘটেছে সিলেট মাদার কেয়ার ক্লিনিকে ডা. সৈয়দা তৈয়বা বেগমের তত্বাবধানে। নিহত গৃহবধু দক্ষিণ সুরমা উপজেলার সিলাম তেলিপাড়া গ্রামের আজির উদ্দিনের স্ত্রী সুলতানা বেগম (২৮)।
স্বামীর অভিযোগ, সুলতানার আগের দুটি ছেলের জন্ম হয়েছিল নরমাল। তিনি তৃতীয় সন্তান নেয়ার প্রথম থেকেই গাইনি বিশেষজ্ঞ ডা.সৈয়দা তৈয়বা বেগমের তত্বাধানে চিকিৎসা করাচ্ছিলেন। বর্তমানে তার স্ত্রীর গর্ভের সন্তানের বয়স হয়েছিল ৬ মাস। এই অবস্থায় আজির উদ্দিন স্ত্রীর শারীরিক অবস্থার বিষয়ে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছিলেন ডাক্তার তৈয়বার সাথে।

এক মাস আগে ডা.তৈয়বা তার স্ত্রীকে চিকিৎসার জন্য সিলেট মাদার কেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করান। সেখানে ৩ দিনের চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফেরেন সুলতানা ।পরবর্তীতে গত বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) তার স্ত্রীর শারিরিক অবস্তার অবনতি ঘটলে ডা. তৈয়বার সাথে যোগাযোগ করেন আজির উদ্দিন। তখন তিনি সুলতানাকে মাদার কেয়ার হাসপাতালে পুনরায় ভর্তি করানো জন্য বলেন। ভর্তি হওয়ার পরে ডাক্তার তৈয়বা বেশ কিছু টেস্ট করিয়ে বলেন,গর্ভের বাচ্চা সুস্থ আছে।



পরে সুলতানার শারিরিক অবস্থার আরো অবনতি হলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ডা.তৈয়বাকে ফোন করেন। তবে ডা.তৈয়বা আসতে অনেক দেরি করেন। এ সময়কালে রোগীর আশঙ্কাজনক হয়ে পড়ে। ডাক্তার তৈয়বা এসে রোগীর স্বামী আজির উদ্দিনকে বলেন, বাচ্চা ভেতরে নষ্ট হয়ে গেছে এবং রোগীর প্রচুর রক্তপাত হচ্ছে। তাই দ্রুত ১২ থেকে ১৫ ব্যাগ রক্ত দিতে হবে। তাৎক্ষণিক রোগীর স্বামীসহ স্বজনরা ৫ ব্যাগ রক্ত প্রদান করেন । এর কিছুক্ষণ পর ডা. তৈয়বা বলেন, রোগীকে বাচাঁতে হলে ডিএনসি করতে হবে। রাত ৩ টার দিকে ডাক্তার তৈয়বা বলেন, রোগীর অবস্থা ভালো না। তার বাঁচার সম্ভাবনা ৪০ ভাগ।

তাড়াতাড়ি অন্য কোনো হাসপাতালের আইসিইউতে নিতে হবে। তখন সুলতানাকে নগরীর পার্ক ভিউ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে বৃহস্পতিবার (২৪ ডিসেম্বর) ভোরে সুলতানা বেগম পার্ক ভিউ হাসপাতালের আইসিইউ-তেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

ভুল চিকিৎসায় স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে উল্লেখ করে স্বামী আজির উদ্দিন বলেন, পার্ক ভিউ হাসপাতালে যখন তার স্ত্রীকে নেয়া হয়, তখন পেট দিয়ে প্রচুর রক্ত পড়ছিল। আর তখন তিনি পার্ক ভিউ হাসপাতালের দায়িত্বরত ডাক্তারকে জিজ্ঞাসা করলে ওই ডাক্তার বলেন, গর্ভের বাচ্চা এখনও ৬ মাসের। এ সময় এত বড় অপারেশন করা বিপজ্জনক। আর আইসিইউতে আনা হয়েছে হার্টের সমস্যার জন্য। অন্য কিছুর জন্য নয়। যা ঘটার আগেই ঘটে গেছে ।

শুক্রবার সন্ধ্যায় নিহত সুলতানার স্বজনরা মাদার কেয়ার ক্লিনিকে এসে বিক্ষোভ করেন এবং স্বামী আজির উদ্দিন ক্লিনিকের অভ্যর্থনা কক্ষে তার অবুঝ দুই শিশুকে জড়িয়ে ধরে কান্নায় ভেঙে পড়েন। এসময় সেখানে এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

পরে তিনি সমাধানের লক্ষ্যে রোববার সকাল ১১টায় উভয়পক্ষকে নিয়ে নগরভবনে বৈঠকে বসার আশ্বাস দিলে বিক্ষোভকারীরা মাদার কেয়ার ক্লিনিক ত্যাগ করেন।

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
মরহুম খােরশেদ আলম চৌধুরী স্মৃতি ব্যডমিন্টন টুর্নামেন্ট ২০-২১ ফাইনাল খেলা উদযাপিত!

Development by: webnewsdesign.com