সর্বশেষ সংবাদ

x



“সবাই মিলে ভালো থাকি"

সম্মুখ যোদ্ধাদের “ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ” ও বাংলাদেশ স্কাউটস এর হাইজিন পণ্য বিতরণ

সোমবার, ২২ জুন ২০২০ | ২:৫০ পূর্বাহ্ণ | 179 বার

সম্মুখ যোদ্ধাদের “ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ” ও বাংলাদেশ স্কাউটস এর হাইজিন পণ্য বিতরণ
সম্মুখ যোদ্ধাদের ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ ও বাংলাদেশ স্কাউটস-এর হাইজিন পণ্য বিতরণ

করোনা মোকাবেলায় সম্মুখ যোদ্ধাদের সুরক্ষিত রাখতে “ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ” ক্যাম্পেইনের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ স্কাউটসের মাধ্যমে ঢাকা উত্তর ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন, ডিএমপি এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তর (ডিজি হেলথ) কে জীবাণুনাশক ও পরিচ্ছন্নতার উপকরণ বিতরণ করা হয়েছে।

“সবাই মিলে ভালো থাকি” এই প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে রবিবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই জীবাণুনাশক ও পরিচ্ছন্নতার উপকরণ স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের হাতে তুলে দেওয়া হয়।



ভিডিও কনফারেন্সে উপস্থিতিদের একাংশ ।

করোনার সংক্রমন থেকে সম্মুখ সারির যোদ্ধাদেরকে সুরক্ষিত রাখতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর (ডিজি হেলথ)-কে ২০ হাজার ডেটল সাবান ও ৬ হাজার লিকুইড হারপিক, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনকে ২০ হাজার ডেটল সাবানও ৭ হাজার ৫০০ লিকুইড হারপিক, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনকে ২০ হাজার ডেটল সাবান ও ৭ হাজার ৫০০ লিকুইড হারপিক এবং ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশকে১৫ হাজার ডেটল সাবান ও ২২ হাজার লিকুইড হারপিক পণ্য প্রদান করে ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ (ডিএইচপিবি)।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ও বাংলাদেশ স্কাউটস এর জাতীয় কমিশনার (সমাজ উন্নয়ন ও স্বাস্থ)  মো.শাহ কামালের সভাপতিত্বে হাইজিন পণ্য হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথিহিসেবে উপস্থিত ছিলেন, দূর্নীতি দমন কমিশনের কমিশনার (অনুসন্ধান) ও বাংলাদেশ স্কাউটস এর প্রধান জাতীয় কমিশনার ড. মো. মোজাম্মেল হক খান, বিশেষ অতিথি হিসেবে রেকিট বেনকিজার বাংলাদেশ লিমিটেডের মার্কেটিং ডিরেক্টর নুসরাত জাহান।

এসময় ভিডিও কনফারেন্সে আরও উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে আঞ্চলিক নির্বহী কর্মকর্তা মোঃ হেমায়েত হোসেন, ডিএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (প্রশাসন) আর এম ফয়জুর রহমান, ডিএইচপিবি -এর প্রধান সমন্বয়ক সালাউদ্দিন আহম্মেদ তারেক এবং বাংলাদেশ স্কাউটস এর জাতীয় উপ কমিশনার (স্বাস্থ্য) ও আহবায়ক জামাল উদ্দিন সিকদারসহ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে দূর্নীতি দমন কমিশনেরকমিশনার (অনুসন্ধান) ও বাংলাদেশ স্কাউটস এর প্রধান জাতীয় কমিশনার ড. মো. মোজাম্মেল হক খান বলেন,শুধু এই করোনাকালীন সময়ে নয় সবসময় যেনআমরা সবাই মিলে ভালো থাকি সেই লক্ষ্যে আমাদের কাজ করে যেতে হবে ।পরিচ্ছন্নতার বিষয়টা শুধু এই সময়ে নয় এটি আমাদের সাড়া জীবনের জন্য প্রয়োজন।মহামারীর এই সময়ে আমাদের সাবধানতার বিকল্প নেই।

সভাপতির বক্তব্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ও বাংলাদেশ স্কাউটস এর জাতীয় কমিশনার (সমাজ উন্নয়ন ও স্বাস্থ) মো.শাহ কামাল বলেন, “বৈশ্বিক দুর্যোগের এই সময়েও বাংলাদেশ স্কাউটস ও ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশের কাজ থেমে নেই।নিজেরা ভালো থাকা, অপরকে ভালো রাখার এই উদেশ্যেই আমাদের এই সকল কার্যক্রম ‘সবাই মিলে ভালো থাকি’ এবং আমাদের দেশটাকে সুস্থ্য ও পরিচ্ছন্নরাখি।”

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (এনসিডিসি) ডা: মো: হাবিবুর রহমান বলেন, “বর্তমানে আমরা অনেকটাই সংকটকালীন সময় পার করছি । আমরা যদি এই সময়ে সতর্ক এবং পরিস্কার পরিচ্ছন্ন থাকি তাহলে করোনার থাবা থেকে আমরা মুক্ত হতে পারবো ।এছাড়া দেশের সম্মুখ সারির যোদ্ধাদের জন্য ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ ও বাংলাদেশ স্কাউটস- এর দেওয়া এসব হাইজিন পণ্য অনেকটাই কার্যকরি ভূমিকা পালন করবে।

ডিএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (প্রশাসন) আর এম ফয়জুর রহমান বলেন, করোনা মোকাবেলায় বিভিন্ন সচেতনতামূলক কাজ করে যাচ্ছে ডেটল হারপিকপরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ ও বাংলাদেশ স্কাউটস । তাদের এই কার্যক্রমের জন্য বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

বেনকিজার বাংলাদেশ লিমিটেডের মার্কেটিং ডিরেক্টর নুসরাত জাহান বলেন,বর্তমানে আমরা একটি বড় চ্যালেঞ্জের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি এই সময়ে আমাদের সকলের প্রয়োজন সচেতনতা । সেই সচেতনতার সৃষ্টির জন্যই আমরা বাংলাদেশ স্কাউটসকে সাথে নিয়ে নানা কর্মসূচি গ্রহণ করছি।

এছাড়া এই সময়ে আমাদের সুরক্ষিত রাখতে নিরলসভাবেকাজ করে যাচ্ছে দেশের সম্মুখ সারির যোদ্ধারা। তাদেরকে সম্মান জানিয়ে আমাদের সামান্য উপহার।আমরা আশা করছি, সবার সম্মিলিত প্রচেষ্ঠায় আমরা এই মহামারী থেকে মুক্ত হতে পারবো।

এছাড়া শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ডিএইচপিবি -এর মুখ্য সমন্বয়ক সালাউদ্দিন আহম্মেদ তারেক, বাংলাদেশ স্কাউটস এর জাতীয় উপ কমিশনার (স্বাস্থ্য) ও আহবায়ক জামাল উদ্দিন সিকদার এবং ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে আঞ্চলিক নির্বহী কর্মকর্তা মোঃ হেমায়েত হোসেন বক্তব্য রাখেন।

এর আগে গত বুধবার ডিএইচপিবি- এর পক্ষ থেকে বাংলাদেশ স্কাউটস চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) এবং চট্রগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) কে মোট ঊনচল্লিশ হাজার জীবানুনাশক পণ্য বিতরণ করা হয়।

চট্রগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে পণ্যগুলো গ্রহণ করেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন এবং চট্রগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) এর পক্ষ থেকে পণ্যগুলো গ্রহণ করেন অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার জনাব আমেনা বেগম,বিপিএম-সেবা।

এদিকে, প্রতিদিনই বাড়ছে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। এই ভাইরাস প্রতিরোধে কোন বিকল্প ব্যবস্থা না থাকায় হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হচ্ছে দেশের মানুষকে। এতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে পড়ছে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের দরিদ্র ও অসহায় মানুষ। দেশের এমন পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে “ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ” ক্যাম্পেইনের আওতায় বিশ্বের বৃহত্তম উন্নয়নমূলক সংস্থা ব্র্যাক এর সহযোগিতায় ৫০ হাজার সুবিধাবঞ্চিত ও অসহায় পরিবারের মাঝে জীবাণুনাশক ও পরিচ্ছন্ন পণ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে ।

এছাড়াও ব্র্যাকের মাধ্যমে দেশের প্রায় ৫ শত পরিবারকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
পঞ্চগড় বাংলাবান্ধা ১নং ইউনিয়ন পরিষদে আবারো কুদরত-ই-খুদা মিলন কে চায় জনগণ

Development by: webnewsdesign.com