জনপ্রিয় সংবাদ

x

সন্তানের স্বীকৃতি ও প্রতারক স্বামীর বিচার চেয়ে স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন

রবিবার, ০৩ মার্চ ২০১৯ | ২:৩৫ অপরাহ্ণ | 105 বার

সন্তানের স্বীকৃতি ও প্রতারক স্বামীর বিচার চেয়ে স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন

টাকা ও ব্যবসা হাতিয়ে নিয়ে একমাত্র কন্যা সন্তানকে অস্বীকার করার অভিযোগ উঠেছে বাংলাদেশ জুয়েলারী সমিতির জয়েন্ট সেক্রেটারি জয়নাল আবেদীন খোকনের বিরুদ্ধে। শনিবার (২ মার্চ) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর-রুনি মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন খোকনের স্ত্রী দাবিদার আফরিনা সুলতানা মুক্তা নামের এক নারী। এ সময় তার কোলে শিশু আয়াত ও বোন নাজমাও উপস্থিত ছিলেন।

লিখিত বক্তব্যে মুক্তা বলেন, স্বর্ন ব্যবসার সুবাধে ৪ বছর আগে বাংলাদেশ জুয়েলারী সমিতির জয়েন্ট সেক্রেটারি জয়নাল আবেদীন খোকনের সাথে আমার পরিচয় হয়। সম্পর্কের একপর্যায়ে খোকনকে এক কোটি টাকা যৌতুক দিয়ে ১০১ টাকা কাবিনে বিয়ে করি। বিয়ের পর আমি গর্ভবতী হলে খোকন তার প্রথম স্ত্রী ও পরিবারের পরামর্শে আমাকে বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। এতে আমার পেটের সন্তান নষ্ট হয়ে যায়। খোকনের এরুপ কর্মকান্ডে তাকে ৬ পর তালাক দেই। খোকন নিজের দোষ স্বীকার করে দুই মাস পর আমাকে ফের বিয়ে করে। বিয়ের ৬-৭ মাস পর আমি আবারো গর্ভবতী হই। এর মাঝে খোকনের প্রথম স্ত্রী তার গাড়ি চালক ও এক হুজুরের মাধ্যমে কৌশলে আমার ঘরে থাকা ৭৮ ভরি স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায়। বিষয়টি খোকন জানলেও ব্যবস্থা নেয়নি। খোকনের এমন অনৈতিক কর্মকান্ডে দ্বিতীয়বার তালাক দিতে চাইলেও সে কোরআন নিয়ে শফত করে তা স্থগিত করান। পুনরায় আমি তাকে বিশ্বাস করে শেষ সুযোগ হিসেবে সংসারে ফিরে আসি এবং গর্ভধারণ করি।

মুক্তা বলেন, গত বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারি আমার কন্যা সন্তানের জন্মের পর থেকে খোকনের নিষ্ঠুরতা ও অর্থলোভী বিষয়টি আবারো সামনে আসে। সে আমার একাউন্টে থাকা ২০ লাখ টাকা তুলে নেয়। এবং বিভিন্ন মহলে বলে বেড়ায় ওই বাচ্চা তার নয়। তবে বাচ্চার স্বীকৃতি দেয়ার জন্য সে আমার কাছে ১০ কোটি টাকা দাবি করছে। আমি এর প্রতিবাদ করলে খোকন আমাকে ও আমার মেয়ের প্রাণনাশের হুমকি দেয়। এ ঘটনায় থানায় জিডি ও আদালতে মামলা করেও কোন সুরহা হয়নি। তাই তিনি ও তার সন্তান নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। নিরাপত্তা পেতে ও সন্তানের পিতার স্বীকৃতির জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন মুক্তা। অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে জয়নাল আবেদীন খোকন বলেন, মুক্তার সাথে তার বিয়ে হয়েছে। মুক্তার ঘরে জন্ম নেয়া শিশুটি তারই। তবে বনিবনা না হওয়ায় মুক্তা তাকে তালাক দিয়ে মামলা করে। মামলাটি কোর্টে বিচারাধীন রয়েছে।

২০ বাংলাদেশিসহ ৯২ অবৈধ অভিবাসী গ্রেপ্তার মালয়েশিয়ায়

Development by: webnewsdesign.com