সর্বশেষ সংবাদ

x



রানীনগরে গভীর রাতে বাড়িতে ঢুকে খুন                                            

শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০ | ৪:২০ পূর্বাহ্ণ | 62 বার

রানীনগরে গভীর রাতে বাড়িতে ঢুকে খুন                                             
গোয়াল ঘরের টিনের চালের কাটা অংশ (উপরে) নিহত রুঞ্জু মন্ডল (৪৫) (নিচে)

রাণীনগরে গভীর রাতে বাসায় ঢুকে রুঞ্জু মন্ডল (৪৫) নামে এক ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে মূখোশধারী দূর্বৃত্ত। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার রাতোয়াল গ্রামে। রুঞ্জু মন্ডল ওই গ্রামের আলহাজ শুকবর আলী মন্ডলের ছেলে।

রুঞ্জু মন্ডলের বড় মেয়ে রুমি আক্তার (২২) জানান, বৃহস্পতিবার রাতে খাবার খেয়ে আমরা সবাই ঘুমিয়ে পড়ি। রাত অনুমান সাড়ে ১২টা নাগাদ মূখোশধারী এক যুবক বাসার সাথে লাগানো গোয়াল ঘরের টিনের চালার টিন কেটে রান্না ঘরে প্রবেশ করে পানির মটর চালু করে। এসময় আমার নানু মটরের পানি পরছে টের পেয়ে মা’কে ডেকে মটর বন্ধ করতে বলে। আমার বাবা উঠে মটর বন্ধ করার জন্য রান্না ঘরের দরজা খোলা মাত্রই মূখোশধারী ওই যুবক এ্যলোপাথারী ভাবে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাতে থাকে। এসময় আমার মা এগিয়ে গেলে তাকেও কোপ মারে। আমরা সবাই উঠলে হামলাকারী গোয়াল ঘরের দরজা খুলে পালিয়ে যায়।



তবে সে কি এক জনই ছিল নাকি বাহিরে আর কেউ ছিল তা বলতে পারছিনা। এছাড়া তার বাবাকেই শুধু হত্যার উদ্দেশ্যে এই হামলা নাকি বাড়ীতে ডাকাতি করার কোন পরিকল্পনা ছিল তাও কেউ বলতে পারছেনা ।

খবর পেয়ে রাতেই থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। আহত রুঞ্জু মন্ডলকে উদ্ধার করে প্রথমে নওগাঁ পরে বগুড়া শহীদ জিয়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভোর রাতে মারা যায়। রুঞ্জু মন্ডল স্থানীয় রাতোয়াল বাজারে ধান, চাল, সার ও তেলের ব্যবসা করতেন। তবে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানা পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

এ ব্যপারে রাণীনগর থানার ওসি (তদন্ত) তারিকুল ইসলাম বলেন, খরব পেয়ে রাতেই আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ডাকাতি বা লুটপাটের জন্য ঘটনা ঘটতে পারে এমন কোন আলামত পাইনি। তবে যেই এটা করুকনা কেন ওই বাড়িতে তার আগে থেকেই যাতায়াত ছিল এবং পূর্ব কোন শত্রুতার জের ধরে হয়তো এঘটনা ঘটাতে পারে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।                               

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
ঢাকার দোহারে স্কুল শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ

Development by: webnewsdesign.com