মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ উৎপাদন ও বিপণনে বেকারদের বিনিয়োগ করতে চাই-মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

শনিবার, ২১ নভেম্বর ২০২০ | ৭:১৬ অপরাহ্ণ | 11 বার

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ উৎপাদন ও বিপণনে বেকারদের বিনিয়োগ করতে চাই-মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী
বরিশালের কাশিপুরে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের আওতাধীন ব্লাক বেঙ্গল জাতের ছাগল উন্নয়ন ও সম্প্রসারণ প্রকল্পের আয়োজনে ও জেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর, বরিশাল এর সহযোগিতায় সরকারি ছাগল উন্নয়ন খামার, বরিশাল-এর কার্যক্রম উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মন্ত্রী সহ উপস্থিত অন্যান্যরা

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি বলেছেন, “প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনার কারণে সৃষ্ট বেকারত্ব দূর করতে নির্দেশনা দিয়েছেন। করোনায় বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের সবচেয়ে বড় খাত পোশাক শিল্প ও প্রবাসী আয় বিভিন্নভাবে বাধাগ্রস্ত হয়েছে। বিদেশে থেকে অনেক মানুষ বেকার হয়ে দেশে ফিরেছে। দেশেও অনেকে কাজ হারানোয় বেকারত্ব বেড়েছে। এদের বেকারত্ব দূর করতে হবে। এজন্য  মাছ, মাংস, দুধ, ডিম উৎপাদন ও বিপণন প্রক্রিয়ায় বেকারদের বিনিয়োগ করতে চাই।”

শনিবার (২১ নভেম্বর) বরিশালের কাশিপুরে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের আওতাধীন ব্লাক বেঙ্গল জাতের ছাগল উন্নয়ন ও সম্প্রসারণ প্রকল্পের আয়োজনে ও জেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর, বরিশাল এর সহযোগিতায় সরকারি ছাগল উন্নয়ন খামার, বরিশাল-এর কার্যক্রম উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।



বরিশালের জেলা প্রশাসক এস এম অজিয়র রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অবঃ) জাহিদ ফারুক এমপি, বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তালুকদার মোঃ ইউনুস, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডাঃ আবদুল জব্বার শিকদার ও বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার ড. অমিতাভ সরকার। বরিশাল বিভাগে কর্মরত প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর ও অন্যান্য সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তাগণ এবং আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, “আমরা বেকারদের সক্ষম করে তুলতে চাই, উদ্যোক্তা করতে চাই, গ্রামীণ অর্থনীতিকে সচল করতে চাই। এজন্য মানুষের পুষ্টি ও আমিষের চাহিদা মেটানোর সবচেয়ে বড় খাতকে আমরা বড় আকারে বিস্তার ঘটাতে চাই। করোনা, আম্ফান, বৃষ্টি ও বন্যার কারণে প্রাণিসম্পদ খাতে প্রান্তিক পর্যায়ে ক্ষতিগ্রস্তদের  ৯০০ কোটি টাকার প্রণোদনা দেয়া হবে। এত বড় প্রণোদনা বাংলাদেশের ইতিহাসে এ খাতে আর দেয়া হয়নি। এটা শেখ হাসিনা দিচ্ছেন। যারা ভরাট পুকুরে মাছ চাষ করতে চায়, যারা গবাদিপশু, হাঁস-মুরগী, ভেঁড়া, ছাগল পালন করতে চায় তাদের বিনামূল্যে সহযোগিতা দেয়া হবে, সহজ শর্তে ঋণ দেয়া হবে। আমরা দেখতে চাই, গ্রামের একটা মানুষও বেকার থাকবে না।”

শ ম রেজাউল করিম বলেন, “সারাবিশ্বে যখন করোনায় বিপর্যস্ত অবস্থা, অর্থনীতি মুখ থুবড়ে পড়ছে, সে অবস্থায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যাদুকরী নেতৃত্বে দিয়েছেন। এ কারণে দেশে একজন মানুষও না খেয়ে মারা যায়নি। কেউ বিবস্ত্র অবস্থায় থাকেনি। চিকিৎসার অভাবে একজন মানুষও মারা যায়নি। বাংলাদেশ আজ উন্নত একটি জায়গায় পৌঁছেছে। এটা সম্ভব হয়েছে তাঁর অসাধারণ নেতৃত্বের কারণে।”

বরিশালের গৌরব পুনরুদ্ধার করা হবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন,  “বরিশালের যুবকদের প্রশিক্ষণ ও কর্মসংস্থানের জন্য এখানে প্রাণিসম্পদ প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করা হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারা দেশে উন্নয়নের সমতা নিশ্চিত করতে চান। বরিশাল অঞ্চলে গবাদিপশু, হাঁস-মুরগী, ছাগল খামারসহ প্রাণিসম্পদের সবচেয়ে বড় খামার প্রতিষ্ঠা করা হবে।”

এসময় বরিশালের নেতৃবৃন্দদের সাথে নিয়ে বরিশালে চিড়িয়াখানা ও মহিষ গবেষণা কেন্দ্র করা হবে বলেও জানান মন্ত্রী।

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
বিপুল সম্পদের মালিক হাসপাতালের হিসাবরক্ষক

Development by: webnewsdesign.com