সর্বশেষ সংবাদ

x



বার্ন ইউনিটের চিকিৎসককে মৃত্যুর আগে যা বলেছিলেন নুসরাত

শনিবার, ২৬ অক্টোবর ২০১৯ | ১২:৪৭ পূর্বাহ্ণ | 180 বার

বার্ন ইউনিটের চিকিৎসককে মৃত্যুর আগে যা বলেছিলেন নুসরাত
নুসরাত জাহান রাফি - ফাইল ছবি

বহুল আলোচিত ফেনীর সোনাগাজীর মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যা দায়ে প্রধান আসামি অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাসহ মামলার ১৬ আসামির সবাইকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামুনুর রশিদ এ রায় ঘোষণা করেন।

মামলাটির সাক্ষ্যগ্রহণকালে নুসরাতের মা শিরিনা আক্তার বলেছিলেন, রাফিকে পুড়িয়ে হত্যা চেষ্টার পর তাকে অ্যাম্বুল্যান্সে করে ঢাকায় রওনা দেয়। নুসরাত পথে কিছু কথা বলেছিল, যা মোবাইল ফোনে ধারণ করা আছে।



কারা কিভাবে তাকে ডেকে নিয়ে আগুন দিয়েছে তার বক্তব্যেরও একাধিক ভিডিও রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, মৃত্যুর আগে বার্ন ইউনিটে চিকিৎসকের কাছে দেওয়া জবানবন্দিতে নুসরাত বলেছিল—আমাকে ছাদে ডেকে নেওয়ার পর সেখানে যারা ছিল তাদের মধ্যে আমি একজনকে চিনতে পেরেছি। সে হলো হুজুরের (সিরাজ) জেঠাশের মেয়ে তুহিন (উম্মে সুলতানা পপি)।

তাকে আটক করা হলে কারা কারা জড়িত ছিল, সব প্রকাশ হবে। ওই ভিডিওটি সংরক্ষিত আছে।

পরে জবানবন্দি থেকে জানা যায়, নুসরাতকে যৌন নিপীড়নের মামলায় গ্রেফতার হয়ে জেলহাজতে থাকা অবস্থায় ওই শিক্ষার্থীকে হত্যার নির্দেশ দিয়েছিলেন অধ্যক্ষ এস এম সিরাজ উদ দৌলা। দুই অনুগত ছাত্র নুর উদ্দিন ও শাহাদাত হোসেন শামীম জেলখানায় সিরাজের সঙ্গে দেখা করতে গেলে তিনি নুসরাতকে চাপ দিয়ে মামলা প্রত্যাহার করাতে বলেন। এতে কাজ না হলে তাকে পুড়িয়ে হত্যার পর ঘটনাটি আত্মহত্যা বলে চালানোর নির্দেশনাও দেন তিনি।

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  

Development by: webnewsdesign.com