সর্বশেষ সংবাদ

x



বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা)’র চতুর্থ বর্ষপুর্তি উদযাপন

মঙ্গলবার, ০১ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৩:১২ অপরাহ্ণ | 27 বার

বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা)’র চতুর্থ বর্ষপুর্তি উদযাপন
বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা)’র চতুর্থ বর্ষপুর্তি উদযাপন

বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা)’র চতুর্থ বর্ষপুর্তি উদযাপন উপলক্ষ্যে উপস্থিত সহকর্মীবৃন্দ ও আমন্ত্রিত প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সম্মানিত প্রতিনিধিবৃন্দ সহ দেশের সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।

জাতির পিতার জন্ম শতবার্ষিকী তথা মুজিব বর্ষে বিডা’র চতুর্থ বর্ষপুর্তি উপলক্ষ্যে আয়োজিত আজকের এ সভায় আমার বক্তব্যের শুরুতে আমি গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি স্বাধীনতার মহান স্থপতি, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। বিনম্র শ্রদ্ধায় স্মরণ করছি জাতীয় চার নেতা ও মহান মুক্তিযুদ্ধে জীবন উৎসর্গকারী ৩০ লাখ শহীদসহ সকল মুক্তিযোদ্ধাদের।



মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অর্থনীতি আজ এক দৃঢ় ভিত্তির উপর দাঁড়িয়েছে। ‘বিনিয়োগ বিকাশ’ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অন্যতম বিশেষ উদ্যোগ। বাংলাদেশে কার্যকর বিনিয়োগ বিকাশের লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক ইচ্ছায় বিনিয়োগ বোর্ড ও প্রাইভেটাইজেশন কমিশন কে একীভূত করে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ আইন, ২০১৬ এর ০৪ ধারা অনুযায়ী ২০১৬ সালের ১ সেপ্টেম্বর প্রতিষ্ঠা লাভ করে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা)। “শেখ হাসিনা’র নির্দেশ-বিনিয়োগ বান্ধব বাংলাদেশ”- এ মূলমন্ত্রে দীক্ষিত হয়ে বিডা তার সামগ্রিক কার্যক্রম পরিচালনা করছে। বিডার ভিশন হলো “অর্থনৈতিক অগ্রগতি অর্জনে বিশ্বমানের বিনিয়োগ বিকাশ প্রতিষ্ঠানে পরিণত হওয়া” ।

বেসরকারি খাতে বিনিয়োগকারীদের সার্বিক সহায়তা প্রদানের জন্য বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ দেশের অন্যতম প্রধান বিনিয়োগ উন্নয়ন সংস্থা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে। বর্তমান বিনিয়োগ বান্ধব সরকার বিনিয়োগ উৎসাহিত করার লক্ষ্যে বিনিয়োগের জন্য বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা প্রদান করছে। বিনিয়োগ বিকাশে সরকার কর অবকাশ সুবিধা অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা শিল্পায়ন ত্বরান্বিতকরণে কর রেয়াত মূলধনী যন্ত্র আমদানিতে সুদ মওকুফসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

বিনিয়োগের অন্যতম পূর্বশর্ত হিসেবে বিদ্যুৎ উৎপাদনে স্বাবলম্বী ও উদ্বৃত্ত হয়েছি আমরা এবং দেশের যোগাযোগ অবকাঠামোতে অভূতপূর্ব উন্নয়ন ঘটেছে। এরই ফলশ্রুতিতে বাংলাদেশ বিশ্বে অন্যতম বিনিয়োগ গন্তব্যে পরিণত হয়েছে।

বিডার মিশন হলো- বেসরকারি খাতে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ আকর্ষণ, উন্নত সেবা প্রদান, কার্যকর সমন্বয় সাধন এবং বিনিয়োগ বান্ধব পরিবেশ তৈরিতে সহায়তা করা। সরকারের বিনিয়োগ বান্ধব পদক্ষেপের ফলে বিডায় নিবন্ধিত বিদেশি বিনিয়োগের পরিমান বৃদ্ধি পেয়েছে এবং ২০১৬-২০১৭ অর্থ বছরে ২.৪৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের তুলনায় ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরে তা বৃদ্ধি পেয়ে ৩.৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে উন্নীত হয়েছে। ২০১৬-১৭ হতে মার্চ ২০২০ পর্যন্ত প্রায় ১১ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বৈদেশিক বিনিয়োগ বাস্তবায়িত হয়েছে যা বিনিয়োগ আকর্ষণে বিডাকে একটি প্রাতিষ্ঠানিক রুপ প্রদান করেছে। বিনিয়োগ বিষয়ক বৈদেশিক বিনিয়োগ ও শিল্প ঋণ প্রস্তাব এবং বাণিজ্যিক অফিস ও কর্মানুমোদনের মতো রুটিন কার্যক্রম বিডা পরিচালনা করছে।

দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীদের সকল ধরণের সেবা অনলাইনে প্রদানের লক্ষ্যে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়সমূহের সহোযোগিতায় দেশের প্রথম ইন্টার অপারেবল- ওয়ান স্টপ সার্ভিস পোর্টাল প্রস্তুত করেছে। ৩৫টি সংস্থা হতে প্রদত্ত ১৫৪টি সেবাকে ওয়ান স্টপ সার্ভিস কার্যক্রমের মাধ্যমে প্রদানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে বিডা ২১টি সেবা OSS-এর মাধ্যমে প্রদান করছে এবং শীঘ্র-ই আরও ১৬টি সেবা এ তালিকায় যুক্ত হবে।

দেশি ও বিদেশি বিনিয়োগ বৃদ্ধির লক্ষ্যে উদ্যোক্তা তৈরির জন্য উদ্যোক্তা সৃষ্টি ও দক্ষতা উন্নয়ন (ESDP) শীর্ষক প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে।  ইতোমধ্যে আগস্ট/২০২০ পর্য্ন্ত ৪৬,০০০ জন তরুণ উদ্যোক্তা রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করেছেন। ১৪০৫০ জনকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। প্রশিক্ষণ গ্রহণ করা ২৯২৬ জন উদ্যোক্তা ব্যবসার উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। এছাড়া জেলা, উপজেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ে “বিনিয়োগ ও ব্যবসা উন্নয়ন সহায়তা কমিটি” সারাদেশে বিনিয়োগ বিকাশে দায়িত্ব পালন করছে। এর মাধ্যমে তৃণমূল পর্যায়ে বিনিয়োগ বিকাশ ও সম্প্রসারণের লক্ষ্যে বিডা তার প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। স্থানীয় পর্যায়ের এই কমিটিসমূহে প্রিন্ট/ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার প্রতিনিধিদের সদস্য হিসাবে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে এবং এ কার্যক্রমে সাংবাদিক সমাজের আগ্রহ আমি লক্ষ্য করেছি। এছাড়া মাননীয় মন্ত্রী, অর্থ মন্ত্রণালয়ের নেতৃত্বে EoDB স্টিয়ারিং কমিটি এবং মন্ত্রিপরিষদ সচিবের নেতৃত্বে NCMID কমিটি বিনিয়োগ বিকাশে বিভিন্ন সরকারি কার্যক্রম, সংস্কার বিষয়ে কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

সম্প্রতি বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বিনিয়োগ সংক্রান্ত হালনাগাদ তথ্য সংবলিত Bangladesh Investment Handbook: A Guide for Investors শীর্ষক প্রকাশনা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মোড়ক উন্মোচনের মাধ্যমে প্রকাশিত হয় যা সর্বমহলে প্রশংসিত হয়েছে। এছাড়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দিকনির্দেশনায় বিশ্বব্যাংকের ব্যবসা সহজীকরণ সূচকে ২০২১ সালের মধ‌্যে বাংলাদেশের অবস্থান দুই অংকে নিয়ে আসার লক্ষ‌্যে সূচক ভিত্তিক একটি কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়েছে। উল্লেখ্য যে, উক্ত সূচকে এ বছর বাংলাদেশের অবস্থান আট ধাপ (১৭৬ থেকে ১৬৮) তে উন্নীত হয়েছে।

কোভিড-১৯ বিশ্বমহামারীর কারণে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি চলাকালীন এবং পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশ বিনিয়োগ ‍উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন সংস্থা ব্যবসায়িক প্রতিনিধি ও উন্নয়ন সহযোগীদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে মতবিনিময় করেছে এবং এ বিষয়ে কতিপয় সুপারিশ সরকারের নিকট প্রেরণ করা হয়েছে। উক্ত সুপারিশসমূহের মধ্যে কয়েকটি সুপারিশের বিষয়ে ইতোমধ্যে সরকার কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাবের কারণে সৃষ্ট প্রক্ষাপটে বাংলাদেশে বিনিয়োগকারিদের বিনিয়োগ অব্যাহত রাখা ও নতুন বিনিয়োগ আকৃষ্টকরণের লক্ষ্যে একটি সমন্বিত কর্মকৌশল প্রণয়নের জন্য বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ একটি টাস্কফোর্স গঠন করেছে। এছাড়া, বিনিয়োগের উপর কোভিড-১৯ এর প্রভাব নিরুপনে বিডা স্বপ্রণোদিত হয়ে নিবন্ধিত বিনিয়োগকারীদের উপর একটি জরিপ পরিচালনা করেছে এবং জরিপ হতে প্রাপ্ত বিষয়সমূহের সংকলনে একটি প্রকাশনা তৈরির পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

অর্থনীতিকে বহুমুখীকরণ এবং কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে বেসরকারিখাতে বিনিয়োগ আকর্ষণ, প্রধান প্রধান খাতের প্রতিষ্ঠিত সম্ভাবনাময় বিনিয়োগকারিদের বিনিয়োগ সম্প্রসারণে সহায়তা এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির উৎকর্ষতাকে ব্যবহার করে সম্ভাবনাময় বিনিয়োগ সেবাকে আরো উন্নত করার লক্ষ্য নিয়ে বিডা প্রণয়ন করেছে কৌশলগত পথনকশা ২০২০-২০২৪। মুজিব বর্ষ উদযাপন উপলক্ষ্যে বিডা বঙ্গবন্ধু ইন্টারন্যাশনাল ইনভেস্টমেন্ট সামিট আয়োজনের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। এছাড়া ২০২০ সালে লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং পণ্যকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক “Product of the Year” ঘোষণা করার প্রেক্ষাপটে এখাতে বিডা কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এরই আওতায় বিডা সম্প্রতি বাংলাদেশ অটোমোবাইল অ্যাসেম্বলার্স এন্ড ম্যানুফেকচারার্স এসোসিয়েশন এর সঙ্গে অটোমোবাইল পলিসি আধুনিকায়নে মতবিনিময় করেছে। দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীদের সুবিধার্থে চামেলী-বিডা লাউঞ্জ স্থাপন করা হয়েছে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। এছাড়া বিডা’র নিজস্ব অফিস ভবনের কাজ দ্রুত সম্পন্ন হবে।

আজ বিডা  ৪ বছর পূর্ণ করেছে। যার পরিপ্রেক্ষিতে আমরা বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছি। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে বিডা’র কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা এবং ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারী ও উদ্যোক্তাদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়। এছাড়া বর্ষপূর্তি উদযাপন উপলক্ষ্যে বিডার উদ্যোগে আজ বিটিভিতে একটি টক শো প্রচারিত হবে। আজকের এই অনুষ্ঠান ছাড়াও বিডা’র বর্ষপূর্তি উপলক্ষ্যে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, পত্রিকা ও এসএমএস-এর মাধ্যমে বিডা দেশবাসীকে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর শুভেচ্ছা জানিয়েছে।

আমাদের পথপরিক্রমায় সাংবাদিকদের ইতিবাচক ভূমিকা আমরা বিশেষভাবে স্মরণ করি। সাংবাদিক ও সংবাদকর্মীগণ তাঁদের ক্ষুরধার লেখনির মাধ্যমে গঠনমূলক পদক্ষেপ গ্রহণে বিডা’কে সবসময় সহায়তা করবেন- আজকের দিনে এটিই আমাদের প্রত্যাশা। আমি আজকের এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হওয়ার জন্য সবাইকে আবারও ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
ঢাকার দোহারে স্কুল শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ

Development by: webnewsdesign.com