শুক্রবার ২০শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>
আন্তরিকতা, প্রপোজাল,কাজের স্বাধীনতা পেয়েছি বলেই নতুন গান করলাম : জেমস

বসুন্ধরা গুঁড়া মশলার পৃষ্ঠপোষকতায় এক যুগ পর জেমস এর নতুন গান

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   বৃহস্পতিবার, ২৮ এপ্রিল ২০২২ | প্রিন্ট

বসুন্ধরা গুঁড়া মশলার পৃষ্ঠপোষকতায় এক যুগ পর জেমস এর নতুন গান

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাহফুজ আনাম জেমস ও বসুন্ধরা গ্ৰুপের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা

-প্রতিনিধি

মাহফুজ আনাম জেমস, যার গান না থাকলে জমে না কোনো উৎসবের আসর। এমন একটা সময় ছিল যখন উৎসব মানেই জেমসের নতুন গান। বিশেষ করে চাঁদরাতে প্রকাশ হতো জেমসের নতুন গান। যার অপেক্ষায় থাকতো শ্রোতা-ভক্তরা।

বসুন্ধরা ডিজিটাল ইউটিউব প্লাটফর্ম এর সাথে চুক্তিস্বাক্ষর করেছেন জনপ্রিয়ব্যান্ড শিল্পী মাহফুজ আনাম জেমস । বসুন্ধরা গুঁড়া মশলার পৃষ্ঠপোষকতায় বসুন্ধরা ডিজিটালইউটিউব চ্যানেলে এক যুগ পর জেমস এর নতুন গান আসতে যাচ্ছে ঈদ উল ফিতর এর আগের দিন রাতে।

বসুন্ধরা ডিজিটাল এবং দুই বাংলায় জনপ্রিয় এই রক শিল্পীর এক অনন্য মেলবন্ধনের সূচনা হলো নতুন এই চুক্তি স্বাক্ষরের মাধ্যমে।

এটা ইতোমধ্যে সকলেই জেনে গেছেন। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও বেশ কৌতূহলের সৃষ্টি হয়েছে। দীর্ঘ সময় পর জেমসের গান মানে তপ্ত মরুভূমিতে আকস্মিক নেমে আসা বৃষ্টি।

বসুন্ধরা গ্ৰুপ  সেক্টর এ কর্তৃক পরিচালিত “বসুন্ধরা “বসুন্ধরা ডিজিটাল” https://www.youtube.com/c/BashundharaDigital ইউটিউবের যাত্রা খুব বেশি দিনের নয় । নতুন হলেও ভিন্নধর্মী এবং সৃষ্টিশীল কনটেন্ট উপহার দেয়ার জন্য ইতিমধ্যেই চ্যানেলটি পেয়েছে দর্শক জনপ্রিয়তা । ২৫ হাজার সাবস্ক্রাইবার এই চ্যানেলটি তাদের নিজস্ব পণ্যের সৃষ্টিশীল বিজ্ঞাপন ভিডিও ছাড়াও নিয়ে এসেছে
বেশ কিছু মৌলিক ভিন্নধর্মী নাটক যা সাড়া ফেলছে ইউটিউবের দর্শকদের মধ্যে তারই ধারাবাহিকতায় নিজেদের প্রোডাকশন এ প্রথম সিগনেচার মিউজিক ভিডিও পাবলিশ করতে যাচ্ছে নব্য এই ইউটিউব চ্যানেলটি ।

চুক্তি অনুযায়ী বসুন্ধরা ডিজিটাল চ্যানেলের জন্য জেমসবেশ কয়েকটি গানের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন । প্রথম গানটি প্রকাশিত হচ্ছে এই ঈদ উল ফিতরে । ধাপে ধাপে অন্যান্য গানগুলো এই চ্যানেল থেকেই প্রকাশিত হবে । গানের পূর্ণ স্বত্বাধিকার থাকছে বসুন্ধরা ডিজিটাল এর কাছে।

প্রায় ১২ বছর পর, জেমস তার নিজের লেখা এবং সুরে মৌলিক গান নিয়ে আসতে যাচ্ছে । কেনো এতদিন অপেক্ষা করতে হলো নতুন গানের জন্য এই প্রশ্নে জেমস বলেন,বসুন্ধরার আন্তরিকতা এবং প্রপোজাল আমার ভালো লেগেছে, বিশেষ করে কাজের স্বাধীনতা দিয়েছিলো, যা কিনা নতুন করে কাজ করতে অনুপ্রাণিত করেছে।

ভবিষ্যতে আরও কিছু একক গান তাদের সাথে করবো এবং পরবর্তীতে এলবাম আকারে প্রকাশের ইচ্ছে আছে।বসুন্ধরা ডিজিটাল এর জন্য শুভ কামনা,আশা করি,এইপ্লাটফর্ম দেশের এক নম্বর এন্টারটেইনমেন্ট প্লাটফ হিসেবে নিজেকে অচিরেই জায়গা করে নিবে।

এদিন জেমস জানালেন কেন এত দিন পর গান করছেন। মঞ্চে নির্ধারিত সময়ে বক্তব্যের জন্য বাংলাদেশের এই রকস্টারকে ডাকা হয়। কেন এত দিন পর গান? এই প্রশ্নের জবাবে অকপটেই জেমস বললেন, ‘কারণ একটাই যে ওরা আমাকে সম্পূর্ণ স্বাধীনতা দিয়েছে, বলেছে আপনার যা ইচ্ছা যেভাবে ইচ্ছা গান করতে পারেন, এটা একজন শিল্পীর জন্য অনেক সম্মানের।

নিজের মতো করে কাজ করা তো একজন শিল্পীর জন্য ভালো। ’বসুন্ধরার অ্যাপ্রোচ ভালো লাগার কারণেই নতুন গান করলেন বলে জানালেন লেইস ফিতা লেইস খ্যাত এই গায়ক। তিনি বলেন, ‘এত দিন পরে, মে বি বসুন্ধরার অ্যাপ্রোচটা আমার ভালো লেগেছে। এটা বোধহয় কারণ, কেন আমি নতুন গান করছি, অ্যাপ্রোচটা ভালো লেগে গেছে। এ জন্যই করছি গান।
এর চেয়ে বড় বা অন্য কোনো কারণ নেই।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জনাব শওকত আকবর (সিওও, ব্যাঙ্কিং, সেক্টর এ, বসুন্ধরা গ্ৰুপ), ক্যাপ্টেন শেখ এহসান রেজা (চিফ হিউম্যান রিসোর্স অফিসার, বসুন্ধরা ফুড এন্ড মাল্টি ফুড), জনাব এম এম জসীম উদ্দিন (সি.ও.ও, ব্র্যান্ড এন্ড মার্কেটিং, সেক্টর-এ, বসুন্ধরা গ্ৰুপ), জনাব আব্দুস শুকুর (সি.ও.ও, সাপ্লাই চেইন ডিভিশন, সেক্টর-এ, বসুন্ধরা গ্ৰুপ),জনাব ফরহাদ আলী রেজা (সিওও, সাপ্লাই চেইনডিভিশন, বসুন্ধরা মাল্টি ফুড), জনাব বেলাল হোসেন (চিফ ফিনান্সিয়াল অফিসার, বসুন্ধরা ফুড এন্ড মাল্টি ফুড), জনাব মোস্তফা কামাল ভূঁইয়া (হেড অফ  ডিভিশন, রেগুলেটরি এফেয়ার্স, সেক্টর-এ, বসুন্ধরা গ্ৰুপ), জনাব সাদ তানভীর (হেড অফ এইচ আর, বসুন্ধরা এলপি গ্যাস লিঃ),জনাব জাকারিয়া জালাল (হেড অফ ডিভিশন, সেলস, বসুন্ধরা এলপি গ্যাস লিঃ ) ও বসুন্ধরা গ্ৰুপের আরও অনেক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৫:১৮ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ২৮ এপ্রিল ২০২২

dhakanewsexpress.com |

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
মোঃ মাসুদ রানা হানিফ প্রকাশক ও সম্পাদক
অফিস

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় ৮৯/আই/১, আর কে মিশন রোড, গোপীবাগ (৭ম গলি) ঢাকা-১২০৩।

হেল্প লাইনঃ ০১৭২০-০০৮২৩৪, ০১৯২০-০০৮২৩৪

E-mail: dhakanewsexpress@gmail.com, dhakanewsexpress1@gmail.com