জনপ্রিয় সংবাদ

x



পাবনার সুতাপট্টি থেকে গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার

শনিবার, ১৬ মার্চ ২০১৯ | ৬:০০ অপরাহ্ণ | 140 বার

পাবনার সুতাপট্টি থেকে গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার

পাবনা শহরের সুতাপট্টির একটি ভবন থেকে এক গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার নাম বিথী আকতার সাজু (৪০)। শহরের মনোহরপুরের সাহেদা খাতুনের মেয়ে তিনি।

শনিবার দুপুর দুইটার দিকে পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্যে মর্গে পাঠায়।



পাবনা সদর থানর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (অপারেশন) জালাল উদ্দিন পরিবার ও স্থানীয়দের বরাত দিয়ে বলেন, পাবনা সদর উপজেলার কোলাদী জামতলা এলাকার ইলেট্রিশিয়ান জুলফিকার আলী ভুট্টকে স্বামী পরিচয় দিয়ে ৪ মাস আগে সুতাপট্টির ওই ভবনের ৫ম তলার একটি ফ্লাটে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস শুরু করেন বিথী। এর আগেও চাপাইনবাগঞ্জের এক ব্যক্তির সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছিল। সেখানে ১৫ বছরের একটি ছেলে সন্তানও রয়েছে তার। শনিবার বেলা ১২টার দিকে পাশের ফ্লাটের লোকজন গন্ধ পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।

নিহত গৃহবধূ বিথীর মা সাহেদা খাতুন বলেন, আমার মেয়ের প্রথমে চাপাইনবাবগঞ্জে বিয়ে হয়। গত ১০/১২ বছর আগে তার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন হয়। পরে ভুট্টর সঙ্গে বিয়ে হলে সম্প্রতি এই বাড়ির ৫তলায় ভাড়া নিয়ে বসবাস শুরু করে বিথী। লোকজন খবর দিলে আমি ঘটনাস্থলে ছুটে এসে এই অবস্থা দেখি। আমার মেয়েকে তার দ্বিতীয় স্বামী হত্যা করতে পারে বলে তিনি ধারণা করছেন।

এ বিষয়ে মুঠোফোনে নিহতের ছেলে হিমেল রানা বলেন, আমি গত সপ্তাহে চাপাইনবাবগঞ্জে এসেছি। কারা আমার মাকে হত্যা করেছে বলতে পারছি না। তবে জুলফিকার আলী ভুট্ট আমার মাকে হত্যা করতে পারে বলেও তিনি ধারণা করেন।

ওসি আরও বলেন, কয়েকদিন আগে তাকে শ্বাসরোধে হত্যার পর বাসা থেকে বের হয়ে গেছে খুনি। এই ঘটনার সঙ্গে নিহতের দ্বিতীয় স্বামী জুলফিকার আলী ভুট্ট জড়িত থাকতে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ঘটনার পর থেকেই তিনি পলাতক। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে বলেও জানান তিনি।

250
পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদ ও সাতদিন পেঁয়াজ বর্জনের আহ্বান জানিয়ে ৭টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মানববন্ধন

Development by: webnewsdesign.com