সর্বশেষ সংবাদ

x



পঞ্চগড় সর্ব উত্তরের জেলা শরতের একটি দৃশ্য ক্যামেরা বন্দি

বৃহস্পতিবার, ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৫:১৭ অপরাহ্ণ | 52 বার

পঞ্চগড় সর্ব উত্তরের জেলা শরতের একটি  দৃশ্য ক্যামেরা বন্দি
পঞ্চগড় সর্ব উত্তরের জেলা শরতের একটি দৃশ্য ক্যামেরা বন্দি
sheikh rasel

পঞ্চগড় বাংলাদেশের সর্ব উত্তরের জেলা এখন শরতকাল প্রচন্ড রোদ আর হু হু গরম হাওয়া নীল আকাশে থোকা থোকা সাদা মেঘের খেলা। আজ ১৯ শে ভাদ্র সাংবাদিক হিসেবে সংবাদ সংগ্রহের কাজে প্রচন্ড রোদের মধ্যেও পঞ্চগড়ের তেতুলিয়া উপজেলার সীমান্ত ঘেষা এলাকা দিয়ে যাচ্ছিলাম এমন সময় শহর থেকে প্রায় ২৩ কিলোমিটার দূরে ময়নাগুড়ি নামক স্থানি গিয়ে প্রচন্ড পানির পিপাসা পেল পানি পান করার সময় হঠাৎ চোখে পড়ে গেল শরতের সাদা কাশফুলের বিশাল এলাকা। এ যেন বিধাতার অপরূপ সুন্দর যে সাজিয়ে রেখেছে প্রকৃতির রূপ। যেদিকে তাকাই সেদিকেই শুধু সাদা কাশফুল আর কাশফুল। আমি কিছুক্ষণের জন্য প্রকৃতির লীলাভূমির কাছে হারিয়ে যাই। ব্যাগ থেকে ক্যামেরা বের করে এই সুন্দর কাশফুলের সৌন্দর্যকে ক্যামেরাবন্দি করে ফেললাম। শরতের এই সৌন্দর্যের নীলা দেখে মনে পড়ে যায় শরতের এক গল্পের কথা যা অনেক আগেই গল্পের বই পড়েছিলাম। সুমিতা তুমি কি এখনো খুঁজে হিরো নীল আকাশের অভ্র তোমার শরতে কি হয় না স্মরণ। দক্ষিণা হাওয়ার তালে তালে কাশফুল নিত্য করে, আমরা ছিলাম নদীর ধারে, নীল আকাশের অভ্র, যেন কাশফুলের পালক শোভিত উদ্যান গ্রুপে নিত্য চলছিল ফিরে দিগন্ত জুড়ে তুমি কি ভুলে গেছো। অপরাধী নীল আকাশে সাজানো স্বপ্ন। তোমার হৃদয়ে কি জাগে না। সেই সব দিন, একসাথে নীল আকাশ চেয়ে চেয়ে, আসে গোধূলি জননন্দিত নায়কের বিদায়ে, পাখির সব নীড়ে ফিরে তাই করুন সুশ্রী। সুমিতা ভুলে গেছো তুমি, ভুলে গেছো সে সব কথা। এই কিছুক্ষণের মধ্যে চলে গিয়েছিলাম অনেক দূরে সেসব ভাবতে ভাবতে যখন অনেক সময় পেরিয়ে যায় হঠাৎ ধমক দিয়ে বলে আমার সহকর্মী সাংবাদিক মঞ্জু ইসলাম ভাই আপনি যেন কাশফুল এর মাঝে কোথায় হারিয়ে গেছেন অনেক দেরি হয়ে গেল এখন চলেন বাড়ির দিকে এগিয়ে যাই সূর্য ডুবু ডুবু শরতের বিকেল প্রচন্ড রোদে ক্লান্ত শরীর নিয়ে বাইকে করে চলতে থাকি আমাদের গন্তব্য স্থানের দিকে। বাইকটি ড্রাইভ করছিল সাংবাদিক ছোট ভাই মঞ্জু ইসলাম আমি পিছনে বসে ভাবতে থাকি সেই শৈশবের কথা এখন তোমার ফালতু সময় নেই। যে ছোটবেলার মতো আমার বন্ধু আয়েশাকে নিয়ে খেলতে যাব, খেলা শেষে মায়ের বকুনি খেয়ে মা বলবে খেয়েছো দয়েছো এখন ঘুমিয়ে পড়ো রাত হয়েছে অনেক। হারিয়ে গেছে ছোটবেলার সেই সুখের দিনগুলো। কিন্তু আজও হারায়নি প্রকৃতির সৌন্দর্য শরতের কাশফুলের নরম ছোঁয়ায় ঘুরে বেড়ানো কথাগুলো। তাই আমার পোটাল এর সম্পাদক স্যার কে বলবো খুব সুন্দর করে আমার এই লেখাটা যেন প্রকাশ করেন।



আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
তেঁতুলিয়ায় জাল দলিল, ভূয়া ওয়ারিশানে রমরমাট ভাবে চলছে জমি ক্রয়ের পাঁয়তারা

Development by: webnewsdesign.com