সর্বশেষ সংবাদ

x



নষ্ট হতে যাচ্ছে বাংলাদেশের ব্যবসায়ীদের পিয়াজ !

পচে যাচ্ছে আটকা পড়া ১৬৫ ট্রাক পিয়াজ

শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৬:২৬ অপরাহ্ণ | 54 বার

পচে যাচ্ছে আটকা পড়া ১৬৫ ট্রাক পিয়াজ
বন্দরের ওপারে ঘোজাডাঙ্গা সীমান্তে ১৬৫ ট্রাক ভারতীয় পেঁয়াজ বাংলাদেশে ঢোকার অপেক্ষায়

হঠাৎ রপ্তানি বন্ধ করায় ভারতে আটকা পড়েছে বাংলাদেশের ব্যবসায়ীদের ১৬৫ ট্রাক পিয়াজ। গত চার দিনে ওই পিয়াজ নষ্ট হতে যাচ্ছে। প্রতি ট্রাক পিয়াজের মূল্য ১০ লাখ টাকা। আশঙ্কা করা হচ্ছে, এতে প্রতি ট্রাকে ব্যবসায়ীদের পাঁচ থেকে ছয় লাখ টাকার ক্ষতি হবে। সব মিলিয়ে ব্যবসায়ীদের ক্ষতির পরিমাণ দাঁড়াবে নয় কোটি ৯০ লাখ টাকারও বেশি।

গত ১৪ই সেপ্টেম্বর থেকে এসব ট্রাক ভারতে আটকে আছে। কবে নাগাদ এসব পিয়াজ দেশে আসতে পারবে তার জানেন না ব্যবসায়ীরা। ভোমরা স্থলবন্দরের ব্যবসায়ীদের সংগঠন ভোমরা সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান নাসিম সাংবাদিকদের জানান, পিয়াজ রপ্তানি বন্ধ ঘোষণার আগেই ১৬৫ ট্রাক পিয়াজ ভারত থেকে এলসি করা ছিল ভোমরা বন্দরের ব্যবসায়ীদের। গত সোমবার হঠাৎ করেই রপ্তানি বন্ধ ঘোষণা করায় বিপাকে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা।



মোস্তাফিজুর রহমান নাসিম বলেন, পিয়াজের ট্রাকগুলোর ডকুমেন্ট পাস করা রয়েছে। জেনেছি আগের এলসি করা পিয়াজের ট্রাকগুলো তারা ছেড়ে দেবে। তবে এখনও পর্যন্ত ছাড়েনি বা কোনো সুরহা হয়নি। ধারণা করা হচ্ছে, পিয়াজ দেশে দেশে আসতে-আসতে অর্ধেকেরও বেশি নষ্ট হয়ে যাবে।

তিনি বলেন, এতদিন এক টন পেঁয়াজ ৩০০ ডলারে ভারত থেকে আমদানি করা হচ্ছিল। ভারতের অভ্যন্তরীণ উৎপাদন কম হওয়ায় মূল্য বাড়ানোর জন্য পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করা হয়। ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি করতে গেলে দাম নির্ধারণ করে দেয় ন্যাপেট নামে একটি সংস্থা। ন্যাপেট বর্তমানে এক টন পেয়াজের মূল্য নির্ধারণ করেছে ৭০০ ডলার।

ভোমরা স্থলবন্দরের রাজস্ব কর্মকর্তা মহসিন হোসেন জানান, ওপারে কত ট্রাক পেঁয়াজ দেশে ঢোকার অপেক্ষায় রয়েছে তার পরিসংখ্যান আমাদের জানা নেই। ভারত কেন হঠাৎ পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করল সে বিষয়ে লিখিতভাবে কিছু জানায়নি। কবে রফতানি শুরু করবে তাও জানায়নি আমাদের।

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
শ্রমিক ছাড়া দেশ অচল, ঠাকুরগাঁও ৩ আসনের এম পি জাহিদুর রহমান।

Development by: webnewsdesign.com