‘খোকা ছিলেন সর্বস্তরের মানুষের প্রিয় একজন নেতা, এটা তারই প্রমাণ। ’

নিউইয়র্কে সাদেক হোসেন খোকার প্রথম জানাজায় মানুষের ঢল

মঙ্গলবার, ০৫ নভেম্বর ২০১৯ | ১২:১০ অপরাহ্ণ | 88 বার

নিউইয়র্কে সাদেক হোসেন খোকার প্রথম জানাজায় মানুষের ঢল
মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকার কফিনে শেষ শ্রদ্ধা হিসেবে স্যালুট জানান সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম,যুক্তরাষ্ট্র শাখার নেতৃবৃন্দ

অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকার প্রথম জানাজা কুইন্সের জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারে অনুুষ্ঠিত নামাজে জানাজায় সর্বস্তরের মানুষের ঢল নেমেছিল ।

নিউইয়র্ক সময় সোমবার রাতে এশার নামাজের পর কুইন্সের জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারে তার জানাযা অনুষ্ঠিত হয়।



এদিকে, স্থানীয় সময় মঙ্গলবার রাতে সাদেক হোসেন খোকার মরদেহ বাংলাদেশে পাঠানোর সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে মরদেহ ঢাকায় পৌঁছনোর কথা।

অন্তিম ইচ্ছা অনুযায়ী ঢাকার জুরাইন কবরস্থানে মায়ের কবরের পাশে সমাহিত করা হবে সাদেক হোসেন খোকাকে।

জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারে জানাজার আগে মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকার কফিনে শেষ শ্রদ্ধা হিসেবে স্যালুট জানান সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম, যুক্তরাষ্ট্র শাখার নেতৃবৃন্দ। তারা জাতীয় পতাকা দিয়ে কফিন আচ্ছাদিত করে দেন।

স্যালুটে অংশগ্রহণকারী মুক্তিযোদ্ধার মধ্যে ছিলেন সংগঠনের সভাপতি রাশেদ আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল বারী বকুল, সহ-সভাপতি আবুল বাশার চুন্নু ও কার্যকরি সদস্য লাবলু আনসার। কফিনে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে জানাযায় এসেছিলেন মুক্তিযোদ্ধা বাবরউদ্দিন, সুরুজ্জামান, আব্দুল মুকিত চৌধুরী প্রমুখ।

সাদেক হোসেন খোকার নামাজে জানাজায় ইমামতি করেন জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের খতিব মাওলানা মির্জা আবু জাফর বেগম।

এর আগে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন নিউইয়র্কে বাংলাদেশ কনস্যুলেটের ফার্স্ট সেক্রেটারি শামীম হোসেন।

যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির নেতাকর্মী ছাড়াও দলমত নির্বিশেষে অসংখ্য প্রবাসী সাদেক হোসেন খোকার জানাজায় অংশ নেন।

মসজিদের প্রতিটি ফ্লোর কানায় কানায় ভরে যায়। মসজিদের আশেপাশের সড়কেও হিমেল হাওয়া উপেক্ষা করে তার জানাযায় অংশ নেন শত শত মানুষ।

বিশিষ্টজনদের মধ্যে ছিলেন এটর্নি মঈন চৌধুরী, কাজী নয়ন, ডা. ওয়াদুদ ভূঁইয়া, ডা. ওয়াজেদ এ খান, বেদারুল ইসলাম বাবলা, এমাদ চৌধুরী, আব্দুল লতিফ সম্রাট, গিয়াস আহমেদ, জিল্লুর রহমান, মিল্টন ভূঁইয়া, গিয়াসউদ্দিন, আজহারুল হক মিলন, পারভেজ সাজ্জাদ, এম এ বাতিন, আবু তাহের, হাবিবুর রহমান সেলিম রেজা, জাকির এইচ চৌধুরী, আবু সাঈদ আহমেদ, মোহাম্মদ আলী, সিদ্দিকুর রহমান, হাজী এনাম, সামাদ আজাদ, দরুদ রনেল, , মহিউদ্দিন দেওয়ান, জসীম ভূঁইয়া প্রমুখ।

নিউইয়র্কের আশপাশের রাজ্য থেকেও এসেছিলেন প্রবাসীরা।

স্বল্প সময়ের নোটিসে অনুষ্ঠিত জানাজায় মানুষের ঢলকে ইঙ্গিত করে বিএনপি নেতা এম এ সালাম বলেন, ‘খোকা ছিলেন সর্বস্তরের মানুষের প্রিয় একজন নেতা, এটা তারই প্রমাণ। ’

উল্লেখ্য, স্থানীয় সময় রবিবার দিবাগত রাত ২টা ৫০ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় সোমবার দুপুর ১টা ৫০ মিনিট) নিউইয়র্কে ইন্তেকাল করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকা। তার বয়স হয়েছিল ৬৭ বছর।

চিকিৎসার জন্য ২০১৪ সালের ১৪ মে মাসে সাদেক হোসেন খোকা সপরিবারে যুক্তরাষ্ট্রে যান।

তার লাশ ঢাকার উদ্দেশে জেএফকে ছাড়বে ৫ নভেম্বর মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১১টায়। ৭ নভেম্বর সকাল ৮টায় ঢাকায় পৌঁছার কথা। লাশের সঙ্গে যাচ্ছেন খোকার স্ত্রী ও সন্তানেরা।

উল্লেখ্য, তার স্ত্রীর ট্র্যাভেল ডক্যুমেন্টও একইসঙ্গে ইস্যু করেছে নিউইয়র্ক কন্স্যুলেট ।

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  
মাস্ক না পরলে ৬ মাসের জেল, লাখ টাকা জরিমানা !

Development by: webnewsdesign.com