মঙ্গলবার ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

ঝিনাইদহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের কার্য সহকারীর ঠিকাদারি বাণিজ্য

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   বুধবার, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ | প্রিন্ট

ঝিনাইদহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের কার্য সহকারীর ঠিকাদারি বাণিজ্য

ঝিনাইদহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের কার্য সহকারী মাহবুবুর রহমান জনির বিরুদ্ধে ঠিকাদারি সিন্ডিকেট পরিচালনার অভিযোগ উঠেছে। শ্রমিক সংগঠনের নেতা হিসাবে পরিচয়ে তিনি অফিসে দৌরাত্ব্য চালান। নিজের খেয়াল খুশিমত অফিসে আসেন। অফিসে তার জন্য বরাদ্দকৃত চেয়ার না থাকলেও মাঝে মাঝে দেখা যায় তিনি উপ সহকারী প্রকৌশলীর চেয়ারে বসে আছেন। পানি উন্নয়ন বোর্ডে আউট সোর্সিংয়ের মাধ্যমে জনবল নিয়োগ ও গাছ লাগানোসহ বিভিন্ন প্রকারের কাজ করছেন মাহবুবুর রহমান জনি। এই কাজে তিনি সাঈদ নামের এক সহযোগীকে সাইনবোর্ড হিসাবে ব্যবহার করছেন।

ঝিনাইদহ পানি উন্নয়ন বোর্ডে জনবল সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান জেমসন্স টেডিং এজেন্সি ২০২১ সালের জুন মাস থেকে জনবল সরবরাহ করে আসছে যার টেন্ডার আইডি-৬৪২২৯২। এই প্রতিষ্ঠান যশোর পানি উন্নয়ন বোর্ডেও জনবল সরবরাহ করে থাকে। এই কাজেরও পার্টনার মাহবুবুর রহমান জনি।

সম্প্রতি ঝিনাইদহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের আউট সোর্সিংয়ে নিয়োগ দেওয়া হয় ড্রাইভার ২ জন, পাম্প অপারেটর ২ জন, পরিষ্কারক ৪ জন, গেট অপারেটর ১২ জন এবং খালাসি ৩ জনসহ মোট ২৩ জন। সম্প্রতি গেট অপারেটর পদে নিয়োগকৃত হরিণাকুন্ডু উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের মোঃ মোস্তাফিজুর রহমানের ছেলে সোহেল রানাকে জেমসন্স ট্রেডিং এজেন্সির মালিক আব্দুল মতিনের স্বাক্ষর জালিয়াতি করে বরখাস্ত করেন মাহবুবুর রহমান জনি ও তার সহযোগী আবু সাঈদ। একইভাবে আরও ৩ জনকে বরখাস্ত করে নতুন ৪ জনকে ১০ লাখ টাকার বিনিময়ে নিয়োগ দিয়েছেন। যা পরে জেমসন্স ট্রেডিং এজেন্সির মালিক আব্দুল মতিন চিঠি দিয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলীকে তার স্বাক্ষর জালিয়াতির বিষয়ে জানিয়েছেন।

আব্দুল মতিনের স্বাক্ষর জাল করে জেমসন্স ট্রেডিং এজেন্সির প্যাডে আবু সাঈদকে চেক উত্তোলনের ক্ষমতাও দেওয়া হয়। যা পরে বাতিল করে পানি উন্নয়ন বোর্ড। সরকারি চাকরি বিধি অনুযায়ী ঠিকাদারি কাজ করা না গেলেও দেদারসে করে যাচ্ছেন মাহবুবুর রহমান জনি। ঠিকাদারি কাজের কমিশন হিসাবে মেসার্স নগর উন্নয়ন ফার্মের মালিক ইমরান তাকে ঝিনাইদহ পুবালী ব্যাংকের একাউন্ট নং ১৩৭২৯০১০৫৫৬০২ থেকে চেক নং এএস ১০০-সি-৯২৩০১১২ এর মাধ্যমে এক লাখ টাকা প্রদানও করেছেন। বর্তমানে মাহবুবুর রহমান জনি মেসার্স ভাই ভাই টেডার্স লাইসেন্সে টেন্ডার আইডি ৬৪১০৮২, মেসার্স চমক এন্টার প্রাইজের লাইসেন্সে টেন্ডার আইডি ৬৪১০৮০, মেসার্স সেমন্তি টেডার্সের লাইসেন্সে টেন্ডার আইডি-৩২৩৮১৯ এবং মেসার্স খায়রুল এন্টারপ্রাইজের লাইসেন্সে টেন্ডার আইডি ৬২৬৮২১ এর কাজ করছেন। বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী রাশিদুর রহমানের কাছে মাহবুবুর রহমান জনির ঠিকাদারি কাজের বিষয়ে জানতে ফোন দিলে তিনি অফিসে যেতে বলেন।

উপ সহকারী প্রকৌশলী বিকর্ণ দাসের কাছে এই বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এই বিষয়ে আমি বক্তব্য দিতে পারবো না। নির্বাহী প্রকৌশলীর কাছে শোনেন।

এদিকে জেমসন টেডিং এজেন্সির মালিক আব্দুল মতিন স্বাক্ষর জালিয়াতির ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানিয়েছেন এই বিষয়ে তিনি পানি উন্নয়নের নির্বাহী প্রকৌশলীকে অভিযোগও দিয়েছেন।

তবে কার্য সহকারী মাহবুবুর রহমান জনি বলেছেন, আমার বিরুদ্ধে প্রতিপক্ষরা মিথ্যা অভিযোগ ছড়াচ্ছে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৯:১৯ অপরাহ্ণ | বুধবার, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

dhakanewsexpress.com |

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
মোঃ মাসুদ রানা হানিফ সম্পাদক