সর্বশেষ সংবাদ

x



চিরকুটে ভাঙন, টিম ছাড়লেন পিন্টু ঘোষ

বৃহস্পতিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৬ | ১:২৯ অপরাহ্ণ | 359 বার

ব্যান্ড চিরকুট

ভাঙন ধরল দেশের জনপ্রিয় ব্যান্ড চিরকুটে। টিম ছেড়ে একক ভাবে কাজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দলের অন্যতম সদস্য পিন্টু ঘোষ। বাধ্য হয়ে বিষয়টা মেনেও নিয়েছেন টিম লিডার শারমিন সুমি।

টিম ছাড়ার পর টক্কিজবিডি ডটকমকে পিন্টু ঘোষ জানান, তিনি স্বেচ্ছায় চিরকুট ছেড়েছেন। তবে একক ক্যারিয়ার নয়, বেশ কিছু কারণ আছে। অবশ্যই আমি আবার গানে ফিরব। তবে একক না অন্য কোনও ফর্মে, তা এখনই বলা যাচ্ছে না। আসলে এখানে আমার আর মন টিকছিল না।



বিষয়টি মেনে নিয়ে চিরকুট প্রধান শারমিন সুমি বলেন, পিন্টু অনেকদিন যাবত চাচ্ছিলেন একাই কাজ করবেন। এ নিয়ে কিছুদিন যাবত আমাদের মধ্যে কথা হচ্ছিল। তবে সর্বশেষ কিছু কাজ সে ব্যান্ড দল ছাড়া একাই করেছে। যেমন ‘অজ্ঞাতনামা’ ছবির কাজ। তারপরও সে আমাদের সঙ্গে নিয়মিত শো করতো। আমরা সবাই চাচ্ছিলাম সে আমাদের সঙ্গে থাকুক। কিন্তু সে যেহেতু নিজের ক্যারিয়ার আলাদাভাবে গড়তে চাইছে আমরা বাধা দিতে পারি না। পিন্টুর জন্য আমার এবং চিরকুটের শুভকামনা থাকলো।

তিনি বলেন, বিষয়টি একেবারেই সাধারণ একটি ঘটনা। কারণ আমাদের ব্যান্ডের কিছু নিয়মনীতি আছে। যেগুলো মেনে চলা পিন্টুর পক্ষে সম্ভব হচ্ছিল না। তা তিনি নিজেই উপলব্ধি করে দল ছেড়েছেন। যদি তিনি আগামীতে আবার আমাদের সঙ্গে ফিরে আসতে চান আমরা তাকে দলে নেবো। পিন্টু খুব প্রতিভাবান এবং মেধাবী একজন মানুষ। আমি এবং আমার ব্যান্ডের অন্য সদস্যরা তার সার্বিক মঙ্গল কামনা করি।

পিন্টু ঘোষ

পিন্টু ঘোষ

এদিকে চিরকুটের ভেরিফায়েড ফেসবুক ফ্যান পেজ থেকে এক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে জানানো হয়, পিন্টু আর চিরকুটের সঙ্গে কাজ করছেন না। তিনি নিজেই নিজের ক্যারিয়ার গড়তে চান। সে কারণে ব্যান্ড দলটি সম্মতি দিয়েছে এবং তার সার্বিক মঙ্গল কামনা করেছে।

২০০২ সালে চিরকুট ব্যান্ডের জন্ম। মূলত তাদের পথচলা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আঙিনায়। জন্মের আট বছর পর ২০১০ সালে চিরকুট তাদের প্রথম অ্যালবাম ‘চিরকুটনামা’ হয়। এরপর বিদেশে বেশ কিছু আলোচিত কাজ করেছে এ দলটি।
দলের প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য: সুমি (কণ্ঠ), পিন্টু (কণ্ঠ, গিটার, বেহালা), পাভেল (ড্রামস) ও ইমন (লিড গিটার)।

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
ঠাকুরগাঁও পীরগঞ্জের বথপালীগাঁও নিজস্ব সম্পত্তির উপর দুসক্রীতি কারীদের হামলা

Development by: webnewsdesign.com