জনপ্রিয় সংবাদ

x

গ্রিনলাইন পরিবহনের বাসের টিকিটের মূল্য তালিকা না থাকায় কল্যাণপুর ও দারুস সালাম শাখার কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধ

সোমবার, ২০ মে ২০১৯ | ৭:১৪ অপরাহ্ণ | 64 বার

গ্রিনলাইন পরিবহনের বাসের টিকিটের মূল্য তালিকা না থাকায় কল্যাণপুর ও দারুস সালাম শাখার কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধ
গ্রিনলাইন পরিবহনের বাসের টিকিটের মূল্য তালিকা না থাকায় কল্যাণপুর ও দারুস সালাম শাখার কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধ করে দিয়েছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর

আন্তঃনগর বাস সেবা দেওয়া প্রতিষ্ঠান গ্রিনলাইনের রাজধানীর কল্যাণপুর শাখা সাময়িকভাবে বন্ধ করে দিয়েছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ ।

সোমবার (২০ মে) রাজধানীর কল্যাণপুর ও দারুস সালাম এলাকায় আন্তঃনগর বাস কোম্পানিগুলোর টিকিট কাউন্টারে অভিযান চালায় অধিদফতরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের মনিটরিং দল। এসময় গ্রিনলাইন পরিবহনের এ শাখায় বাসের টিকিটের মূল্য তালিকা না থাকায় তা সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়।

ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার সার্বিক তত্ত্বাবধানে সহকারী পরিচালক মাসুম আরেফিন এবং আফরোজা রহমান এ অভিযানে নেতৃত্ব দেন।

আসছে ঈদ-উল-ফিতরকে সামনে রেখে যাত্রী পরিবহন ব্যবস্থা স্বাভাবিক এবং অনিয়ম মুক্ত রাখতে অধিদফতরের নিয়মিত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এসময় গ্রিনলাইন পরিবহনের কল্যাণপুর শাখায় টিকিটের মূল্য তালিকা প্রদর্শিত অবস্থায় না থাকায় শাখাটিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা এবং সাময়িক বন্ধ করে দেওয়া হয়। ঢাকা থেকে বেনাপোল-যশোর রুটের টিকিট বিক্রি হয় এ শাখা থেকে।

এছাড়া নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে যাত্রীদের কাছে বেশি মূল্যে টিকিট বিক্রির অপরাধে এসআর পরিবহনকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

সার্বিক বিষয়ে অধিদফতরের সহকারী পরিচালক মাসুম আরেফিন বলেন, ঈদে ঘর ফেরত মানুষের যাত্রা নিরাপদ ও নির্বিঘ্ন করতে রোববার (১৯ মে) থেকে আমরা বাস কাউন্টারগুলোতে ভ্রাম্যমাণ মনিটরিং শুরু করেছি। টিকিটের মূল্য তালিকা দৃশ্যমান অবস্থায় রাখা এবং নির্ধারিত দামে টিকিট বিক্রি হচ্ছে কি-না সেই বিষয়গুলো আমরা দেখছি। রোববার হানিফ, নাবিল, এনা, শাহ ফাতেহ আলী, দেশ ট্রাভেলস এবং শ্যামলী পরিবহন- এ ছয়টি প্রতিষ্ঠানকে মূল্য তালিকা না থাকার অপরাধে পাঁচ হাজার টাকা করে মোট ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করি এবং এখানকার সংশ্লিষ্ট সবাইকে এবিষয়ে মৌখিকভাবে সতর্কও করি। এখানে এসে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের কাউন্টারেই মূল্য তালিকা দেখেছি। তবে গ্রীনলাইনের এ কাউন্টারটিতে ছিলো না। আর এসআর পরিবহনে বেশি দামে যাত্রীদের কাছে টিকিট বিক্রি করা হচ্ছিলো। তাই প্রতিষ্ঠান দু’টিকে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। আর গ্রিনলাইন যতোদিন তাদের সবগুলো শাখায় মূল্য তালিকার উপস্থিতি নিশ্চিত না করবে ততদিন এ শাখা সাময়িকভাবে বন্ধ থাকবে।

এ কর্মকর্তা আরও বলেন, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন অনুযায়ী, টিকিটের মূল্য গ্রাহকদের স্বার্থে বড় করে প্রদর্শিত অবস্থায় রাখতে হবে। এমনটা যারা করবেন না তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইন প্রয়োগ করা হবে। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Development by: webnewsdesign.com