সর্বশেষ সংবাদ

x



কালভার্ট ভেঙে কূয়ায় পরিণত! দেখার কেউ নেই, চরম ভোগান্তি পোহাচ্ছে ৭ গ্রামের মানুষ

শুক্রবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৮:২৯ অপরাহ্ণ | 58 বার

কালভার্ট ভেঙে কূয়ায় পরিণত! দেখার কেউ নেই, চরম ভোগান্তি পোহাচ্ছে ৭ গ্রামের মানুষ
কালভার্ট ভেঙে কূয়ায় পরিণত! দেখার কেউ নেই, চরম ভোগান্তি পোহাচ্ছে ৭ গ্রামের মানুষ

পঞ্চগড় জেলাধীন তেঁতুলিয়া উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের সর্দারগছ বালাবাড়ি থেকে বুড়াবুড়ি পর্যন্ত কাঁচা সড়কের একটি কালভার্ট ভেঙে কূয়ায় পরিণত হয়েছে। এতে চরম ভোগান্তি পোহাচ্ছে অত্র এলাকার ৭টি গ্রামের লোকজন। কালভার্টটি ভেঙে যাওয়ার প্রায় দুই বৎসর পার হলেও দেখার কেউ নেই। পথচারীদের বিপদসীমা বুঝানোর জন্য কালভার্ট ভেঙে কূয়ায় পরিণত জায়গাটিতে বাঁশের আকালি দেয়া হয়েছে।
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, ওই রাস্তা দিয়ে সর্দারগছ, নওয়াগছ, কালদাসপাড়া, ডাঙ্গি বালাবাড়ি, কাটাপাড়া, নারায়নগঞ্জ ও বুড়াবুড়ি গ্রামের লোক চলাফেরা করে। এখানকার ভ্যান, অটোরিস্কা, মোটরসাইকেল, ভটভটি ও অন্যান্য যানবাহনগুলো জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কালভার্টটি পার হচ্ছে। ভারি কোন যানবাহন চলাচল করতে পারছে না। এছাড়া এই গ্রাম গুলোর অধিকাংশ লোকই কৃষিজীবি। ভাঙা কালভার্টের কারণে তাদের ফসলের ব্যাঘাত হচ্ছে। ফলে ফসল উৎপাদন করে লোকসান গুনতে হচ্ছে প্রায় দু’বছর ধরে। পঞ্চগড়-তেঁতুলিয়া-বাংলাবান্ধা মহাসড়কের সাথে সংযুক্ত এই পুরোনো সর্বসাধারনের একমাত্র সড়কটির কালভার্ট ভেঙে গিয়ে বিশাল গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় প্রতিনিয়ত জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এই এলাকার মানুষদের চলাচল করতে হচ্ছে। স্থানীয় বাসিন্দারা স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্য কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেও কোনো প্রতিকার পায়নি। এখন পর্যন্ত সংস্কারের কোনো উদ্যোগ না নেয়ায় চরম দূর্ভোগ পোহাচ্ছেন এলাকাবাসী। এসব গ্রামবাসির দাবি দ্রুত ভাঙা কালভার্টটি নতুন করে তৈরী করা হউক এবং সর্দারগছ বালাবাড়ি থেকে বুড়াবুড়ি পর্যন্ত কাঁচা রাস্তাটি পাকা করা হউক।
বুড়াবুড়ি গ্রামের মৃত আলীম উদ্দিনের ছেলে আব্দুর রহমান একই গ্রামের আলহাজ্ব শাহিনুর রহমান ওরফে তরিকুল, মিজানুর রহমান, মোস্তফা কামাল, গোলাম হাফেজ এবং সর্দারগছ গ্রামের রিয়াজুল জানান, এই রাস্তাটি যদিও আগে রেকর্ডীয় ছিলনা তার পরেও পূর্ব পুরুষদের আমল থেকেই উল্লেখিত গ্রামগুলোর মানুষ যাতায়াতে ব্যবহার করে আসছে। প্রায় ২০/২৫ আগে এরশাদের আমলে এই কালভার্টটি নিজেদের উদ্যোগে এবং প্রশাসনের সহযোদিতায় তৈরি করা হয়। বর্তমানে কালভার্টের অবস্থা নাজেহাল। সর্দারগছ বালাবাড়ি থেকে বুড়াবুড়ি পর্যন্ত কাঁচা সড়কের দুরত্ব প্রায় সাড়ে ৩ কিলোমিটার। এই রাস্তাটা কাঁচা রয়েছে। তার উপর বুড়াবুড়ি বাজারের কাছে বুড়াবুড়ি গ্রামের কালভার্টটি ভেঙে যাওয়ায় আমরা পড়েছি মহা বিপদে। এই রাস্তা দিয়ে এলাকার প্রায় ৭/৮টি গ্রামের লোকজন চলাফেরা করে। খুব দ্রুত কালভার্টটি পূণরায় তৈরী ও কাঁচা রাস্তা পাকা করার দাবি জানান তাঁরা। তাঁরা আরও জানান, ওই সড়কটি বর্তমান ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো: তারেক হোসেন এর গ্রামের সড়কও বটে। এই ব্রিটিশ রাস্তা দিয়ে ইউনিয়নের প্রাণ কেন্দ্র বুড়াবুড়ি বাজার যাইতে হয় । এছাড়াও বর্ষাকালে তো আছেই আবার ভাঙা কালভার্টের জন্যে বিশেষ করে বুড়াবুড়ি গ্রামের কোমলমতি ছাত্র/ছাত্রীরা নারায়নগছ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মন্ডলপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বুড়াবুড়ি মির্জা গোলাম হাফেজ উচ্চ বিদ্যালয় এবং আইবুল হক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠান গুলোতে এ রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করতে প্রতিনিয়ত দূর্ভোগ পোহাতে হয়।
এ ব্যাপারে ৫নং বুড়াবুড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: তারেক হোসেন জানান, জনদূর্ভোগের বিষয়টি চিন্তা করেই সর্দারগছ-বুড়াবুড়ি রাস্তার ভাঙ্গা কালভার্টটি নতুন করে তৈরীর জন্য এবার ব্যবস্থা নিবেন। কাঁচা রাস্তা পাকাকরণের ব্যাপারে তিনি জানান, পরবর্তী বরাদ্দ পেলেই অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এই রাস্তা পাকাকরনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 



আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
ঢাকার দোহারে স্কুল শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ

Development by: webnewsdesign.com