সর্বশেষ সংবাদ

x



করোনা চিকিৎসকদের হোটেল বিল দেবে না সরকার

সোমবার, ০৩ আগস্ট ২০২০ | ৮:৩৮ অপরাহ্ণ | 36 বার

করোনা চিকিৎসকদের হোটেল বিল দেবে না সরকার
একটি হাসপাতালে করোনা রোগীর সাথে কথা বলছেন ডাক্তাররা

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) পরিস্থিতিতে জরুরি চিকিৎসায় নিয়োজিত চিকিৎসকসহ স্বাস্থ্যকর্মীদের হোটেলে থাকার বিল এখন থেকে আর সরকার বহন করবে না। সরকারের এ সিদ্ধান্তের ফলে এখন থেকে যাঁরা হোটেলে অবস্থান করবেন, তাঁদের নিজ খরচে অবস্থান করতে হবে।

তবে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে, এখন থেকে যেসব চিকিৎসক হোটেলে অবস্থান করবেন, পরবর্তী সময়ে সরকারের আর্থিক নীতি অনুসরণ করে তাঁদের নির্ধারিত ভাতা দেওয়া হবে।



গত ২৯ জুলাই স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. আবদুল মান্নান স্বাক্ষরিত এ-সংক্রান্ত একটি পরিপত্র জারি হয়।

পরিপত্র অনুযায়ী, রাজধানী ঢাকার মধ্যে দায়িত্ব পালনকারী চিকিৎসকরা দৈনিক দুই হাজার টাকা এবং ঢাকার বাইরে এক হাজার ৮০০ টাকা ভাতা পাবেন। একইভাবে নার্সরা ঢাকার মধ্যে এক হাজার ২০০ ও ঢাকার বাইরে এক হাজার টাকা এবং অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মী ঢাকার মধ্যে ৮০০ ও ঢাকার বাইরে ৬৫০ টাকা ভাতা পাবেন।

এদিকে, হোটেলে থাকার সুযোগ বন্ধ করে দেওয়াটা আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত বলে দাবি করেছেন অনেক চিকিৎসক। তাঁদের মতে, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দায়িত্ব পালন করার পর এ ধরনের সিদ্ধান্ত আসায় হতাশা কাজ করছে।

এ বিষয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে দায়িত্ব পালনরত একজন চিকিৎসক নাম প্রকাশ না করার শর্তে এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘সরকার নতুন পরিপত্রে বলেছে, হোটেলে আর রাখবে না। নিজ দায়িত্বে থাকতে হবে। নিজ দায়িত্বে থাকাকালীন যে কয়েক দিন ডিউটি থাকবে, সেটার জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে। কিন্তু ডিউটি শেষে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে যেতে হবে। এ সময়ের জন্য কোনো বরাদ্দ নেই। তখন আমি বাসায়ও যেতে পারব না। কারণ, আমার বৃদ্ধ বাবা-মা রয়েছেন এবং পরিবার-পরিজন রয়েছে। এটি একটি আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চিকিৎসকরা কাজ করছেন। সরকারের উচিত, যেহেতু বরাদ্দ দিতে পারবে না, চিকিৎসকদের করোনা ইউনিটে দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে স্বাধীনতা দেওয়া।’

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
ঢাকার দোহারে স্কুল শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ

Development by: webnewsdesign.com