সর্বশেষ সংবাদ

x



করোনায় আক্রান্ত ব্যাক্তির পরিবারকে ত্রাণ না দেয়ার অভিযোগ কুতুবপুরের স্থানীয় মেম্বারের বিরুদ্ধে

মঙ্গলবার, ১২ মে ২০২০ | ৪:৪৫ পূর্বাহ্ণ | 153 বার

করোনায় আক্রান্ত ব্যাক্তির পরিবারকে ত্রাণ না দেয়ার অভিযোগ কুতুবপুরের স্থানীয় মেম্বারের বিরুদ্ধে
করোনায় আক্রান্ত ব্যাক্তির পরিবার, ত্রাণ না দেয়ার অভিযোগ কুতুবপুরের স্থানীয় মেম্বার জি.এম আমিন হোসেন সাগর

করোনা ভাইরাসের এই সময় সারা দেশের বেশ কিছু এলাকা লকডাউন করা হয়েছে । গৃহবন্দি মানুষ আজ অসহায় হয়ে পরেছে ক্ষুধার কাছে । লজ্জায় চাইতে পারছেনা কারো কাছে খাবার । এমন অবস্থায় প্রধান মন্ত্রি ঘোষনা দেন প্রতিটি ঘরে ঘরে পৌছাতে হবে ত্রাণ । আক্রান্ত ব‌্যাক্তি বা অসহায় পরিবারের হাতে ত্রাণ পৌছানোর কথা বার বার বললেও আমলেই নিচ্ছেননা অনেক দায়িত্বে থাকা চেয়ারম‌্যান,মেম্বার জনপ্রতিনিধিরা ।উল্লেখ‌্য সারা দেশে ৫৬ জনের মত চেয়ারম‌্যান,মেম্বার জনপ্রতিনিধিকে বহিস্কার করেছে সরকার ।

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার কুতুবপুরে করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির পরিবারকে ত্রাণ না দেয়ার এমনি এক অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় মেম্বারের বিরুদ্ধে । করোনায় আক্রান্ত ব‌্যক্তি লোকমান নিজ বাসায় পরিবারের সবাই সহ হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন । আটকা পরায় কোন কাজকর্ম নেই,বাসা থেকে বের হতেও পারেননা । এমন অবস্থায় তার পরিবারের পক্ষ থেকে স্থানীয় কুতুবপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার জি.এম আমিন হোসেন সাগরকে বেশ কয়েকবার ত্রাণের জন্য ফোন দেয়া হলেও তিনি সাড়া দেননি বলে অভিযোগ উঠেছে।



সূত্রে জানা যায়, কুতুবপুর ইউনিয়নের ভূইঘর রঘুনাথপুরের আরাফাত নগর মসজিদ রোড এলাকার লোকমান গত ১৮ এপ্রিল করোনায় আক্রান্ত হয়। এরপর থেকে এলাকার কোন জনপ্রতিনিধি কিংবা স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার খোঁজ নেননি পরিবারটির । একাধিকবার স্থানীয় কুতুবপুর ইউনিয়ন ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার জি.এম আমিন
হোসেন সাগরকে ত্রাণের জন্য ফোন দেয়া হলেও তিনি সাড়া দেননি।

করোনায় আক্রান্ত লোকমানের পিতা মোঃ মমতাজ উদ্দিন বলেন, আমরা ১নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা। আমার ছেলে গত এপ্রিল মাসের ১৮ তারিখে করোনায় আক্রান্ত হয়। তারপর থেকেই আমাদের পরিবারের সবাই হোম কোয়ারেন্টাইনে আছে । করোনার জন্য বর্তমানে বেকার হয়ে পড়ে থাকলেও কোনো ত্রাণ সহায়তা পাচ্ছি না। এতে আমার পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছি। অনেকবার মেম্বার সাগরকে ফোন দিলেও তিনি আমাদের জন্য কোন ত্রাণ পাঠায়নি বরং সে তালবাহানা করে।

তিনি আরো বলেন, আমাদের এই দুঃসময়ে যাদের কাছে পাওয়ার কথা ছিল তারাই আজ দূরে। তারা এগিয়ে না আসলেও এগিয়ে এসছে এলাকার কিছু লোক।

এদিকে করোনায় আক্রান্ত পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী দিয়েছে মাখন সরকার, কুতুবপুর ইউনিয়ন ১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলমগীর হোসেন ও আরাফাত নগর যুব কল্যান সংষদ।

এবিষয়ে কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুল আলম সেন্টুকে মুঠোফোনে ফোন দেয়া হলে তিনি বলেন,  এবিষয়ে  আমি কিছুই জানিনা মেম্বার জি.এম আমিন হোসেন সাগরকে জিজ্ঞাসা করবো কেন তিনি ঐ পরিবারকে ত্রাণ সহায়তা দেয়নি। আমি ত্রাণ পাঠানোর ব্যবস্থা করবো।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মেম্বার জি.এম আমিন হোসেনকে মুঠোফোনে ফোন দেয়া হলে তিনি হ্যালো হ্যালো বলে
তিনি সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে ফোন কেটে দেন তাই তার বক্তব্য পাওয়া জায়নি। পরে কয়েকবার চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা যায়নি ।

এলাকায় তার বিরুদ্ধে আরো অনেকের অভিযোগ আছে,সে বিএনপি,জামাত সহ আওয়ামীলীগের অনেক ত্যাগি কর্মি আছেন যারা তার বিরুদ্ধে থাকায় তারাও ত্রাণ পাচ্ছেনা।

যারা ত্রাণ পাচ্ছে তারা তার নিকট আত্ব্বীয় সজন ও তার শুভাকাংখি, আছেন অত্র এলাকার কিছু বাড়িওয়ালা ।তবে যারা একান্তই ত্রাণ পাওয়ার উপযোগী তারা পাচ্ছে না।

এলাকার ভোটার না হলে ত্রাণ দিচ্ছেনা । জানতে চাইলে তারা বলেন আপনিযে এলাকার ভোটার সেখানে যান। একজন দরিদ্র লোক জানান আমার বাড়ি সিলেট আমি ভ্যান চালাই অনেক দিন যাবত ঘরে খাবার নাই আর এই অবস্থাতে বাড়ি যাওয়া সম্ভব না, উত্তরে মেম্বার বলেছে আমার কিছুই করার নাই বলে তার অফিস থেকে বের করে দেয়া হয়।

অথচ প্রধানমন্ত্রী বলেছেন প্রতিটি ঘরে ঘরে ত্রাণ পৌছে দেবার জন‌্য । রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে ত্রাণ আসে সবার জন্য কে এলাকার ভোটার আর কে ভোটার না তা দেখা হয় না।

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
“ইয়ুথ ব্লাড ডোনার ক্লাব”র দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপনের প্রস্তুতি মূলক সভা অনুষ্ঠিত

Development by: webnewsdesign.com