জনপ্রিয় সংবাদ

x

একুশ বছর আগের হত্যা মামলার বিচার সম্পন্ন না হওয়ায় জজকে হাইকোর্টে তলব

সোমবার, ২৯ এপ্রিল ২০১৯ | ৬:১৬ অপরাহ্ণ | 41 বার

একুশ বছর আগের হত্যা মামলার বিচার সম্পন্ন না হওয়ায় জজকে হাইকোর্টে তলব

একুশ বছর আগে ডেমরায় হযরত আলী হত্যা মামলার বিচার এখনও সম্পন্ন না হওয়ায় ঢাকার পঞ্চম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ নুরুল আমিন বিপ্লবকে তলব করেছেন হাইকোর্ট। আগামী ৮ মে তাকে ওই মামলার নথিসহ হাইকোর্টে হাজির হতে বলা হয়েছে ।

বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ সোমবার এ আদেশ দেন। ওই মামলার আসামি আসামি হেমায়েত ওরফে কাজল ওরফে কাননের জামিন আবেদনের ওপর শুনানিকালে এ আদেশ দেন হাইকোর্ট। আদালতে জামিন আবেদনকারীপক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট আবদুর রশিদ মিয়া বাদশা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারি অ্যাটর্নি জেনারেল ইউসুফ মাহমুদ মোর্শেদ।

জানা যায়, ১৯৯৮ সালের ১৬ মার্চ হযরত আলীকে কপিয়ে হত্যা করা হয়। একইসঙ্গে মাসুদ হোসেন ব্রিটেন নামের আরেক যুবকের দুই হাত কেটে নেওয়া হয়। এই ঘটনায় নিহতের পিতা শওকত আলী ফকির বাদি হয়ে ৭ জনের নাম উল্লেখসহ ১০/১৫ জন অজ্ঞাতনামা আসামির বিরুদ্ধে ডেমরা থানায় মামলা করেন।

বর্তমানে এটি শ্যামপুর থানায় অন্তর্গত হয়েছে। এ মামলায় তদন্ত শেষে হেমায়েতসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে ২০০৩ সালের ১১ মে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। মামলায় নিম্ন আদালতে ২০০৪ সালের ৮ আগস্ট আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে বিচার শুরু হয়। কিন্তু আজ পর্যন্ত কোনো সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়নি। বারবার সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য হচ্ছে। আগামী ২ মে সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য দিন ধার্য রয়েছে।

এই মামলায় আসামি হেমায়েত এর আগে জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর আদালতে হাজির না হওয়ায় গতবছর ৭ ফেব্রুয়ারি তার জামিন বাতিল করে বিচারিক আদালত। এরও একবছর পর গত ৩১ মার্চ নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পন করে জামিনের আবেদন করেন হেমায়েত। আদালত তার জামিন আবেদন খারিজ করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। সেই থেকে তিনি কারাগারে। এ অবস্থায় হাইকোর্টে জামিনের আবেদন করা হয়। আজ এই জামিন আবেদনের ওপর শুনানি হয়। শুনানিকালে আদালত বিচারককে তলব করেছেন।

Development by: webnewsdesign.com