সর্বশেষ সংবাদ

x



উবারের বিরুদ্ধে ২০হাজার বাংলাদেশিসহ ৯৬হাজার চালকের অর্থ চুরির মামলা

শনিবার, ০৯ নভেম্বর ২০১৯ | ৮:৫৪ পূর্বাহ্ণ | 113 বার

উবারের বিরুদ্ধে ২০হাজার বাংলাদেশিসহ ৯৬হাজার চালকের অর্থ চুরির মামলা
উবারের বিরুদ্ধে ২০হাজার বাংলাদেশিসহ ৯৬হাজার চালকের অর্থ চুরির মামলা-ছবি-বিডি প্রতিদিন

নিউইয়র্ক সিটিতে ২০ হাজারের অধিক বাংলাদেশিসহ ৯৬ হাজার ট্যাক্সি চালকের অর্জিত অর্থের বড় একটি অংশ চুরির অভিযোগে উবারের বিরুদ্ধে ফেডারেল কোর্টে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত ৬ নভেম্বর ম্যানহাটানে ফেডারেল কোর্টে এই মামলা দায়ের করেছে ‘নিউইয়র্ক ট্যাক্সি ওয়ার্কার্স এলায়েন্স’।

মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, উবার চালকের অর্জিত মোট অর্থ থেকে সম্পূর্ণ বে-আইনিভাবে ট্যাক্স কর্তনের পাশাপাশি ব্ল্যাক কার ফান্ড সারচার্জ এবং তাদের সার্ভিস ফি কেটে নিয়েছে ২০১৩ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত। এর ফলে দিনভর ট্যাক্সি চালিয়ে যাত্রী ভাড়া বাবদ ১০০ ডলার আয় হলে, তার বড় একটি অংশ উবারের একাউন্টে চলে যায়।



সেই চালকের ভাগ্যে জোটে বড় জোর ৪০ ডলার। শুধু তাই নয়, চালকের সঙ্গে উবারের প্রতারণার বড় একটি অভিযোগ রয়েছে যে, বৃষ্টি অথবা দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া কিংবা বিশেষ কোন কারণে যাত্রীর সংখ্যা বেড়ে গেলেই উবারের সিস্টেমে ভাড়া বাড়ানো হয়, যার হিস্যা পান না চালকরা।

চালকের সঙ্গে স্বাভাবিক যে চুক্তি রয়েছে সে অনুযায়ী প্রদান করা হয়।

বিষয়টি অবশ্য দায়েরকৃত মামলায় এখনও অন্তর্ভূক্ত করা হয়নি বলে জানা গেছে। কঠোর পরিশ্রমী চালকের সঙ্গে প্রতারণার মাধ্যমে টাক্স এবং সারচার্জ কেটে নেয়ার ঘটনায় ২০১৭ সাল পর্যন্ত ৫ বছরে উবার কমপক্ষে ৮৬ মিলিয়ন ডলার হাতিয়ে নিয়েছে বলে মামলা দায়েরকারি ট্যাক্সি ওয়ার্কার্স এলায়েন্সের কর্মকর্তা টিপু সুলতান জানিয়েছেন।

সংগঠনের নির্বাহী পরিচালক ভৈরবী দেশাই উবারের ছলচাতুরির বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানিয়ে বলেন, ট্যাক্সি চালকরা দিনশেষে খালি পকেটে বাসায় ফিরলেও উবারের মালিক বিলিয়ন ডলারের মুনাফা গড়েন বছর শেষে। আর এভাবেই অভিবাসী সমাজের সদস্য ট্যাক্সি চালকের সঙ্গে প্রতারণায় অভ্যস্ত হয়ে উঠেছে উবার কর্তৃপক্ষ। চালকের অর্জিত অর্থ চুরির এমন ঘটনাকে বরদাশত করা যায় না বলেই আমরা আদালতে যেতে বাধ্য হলাম।

প্রসঙ্গত, উবার প্রতারণার ঘটনাগুলোকে পরিসংখ্যাণগত ভুল হিসেবে মেনে নিয়ে ২০১৭ বেশ ক’জন চালকের অর্থ ফেরত দিয়েছে। তারা নাকি ভুলে অধিক অর্থ কেটে রেখেছিল। তবে মোট কতজনের কাছে থেকে কত মিলিয়ন ডলার কথিত সেই ভুলে কেটে রাখা হয়েছিল, তা বিস্তারিতভাবে প্রকাশ করেনি কিংবা মোট কতজনকে সেই ডলার ফিরিয়ে দিয়েছে তাও জানা যায়নি। যদিও ভুলের সেই ধারাবাহিকতা এখনও অব্যাহত রয়েছে বলেই মামলার উদ্ভব হলো।

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
ধর্মবর্ণ ভুলে গিয়ে ত্রাণ পৌছে যাবে সবার হাতে-মাসুদ রানা

Development by: webnewsdesign.com