আজ ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন, কে হবেন পৌর পিতা ?

সোমবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২০ | ৬:৫৬ পূর্বাহ্ণ | 21 বার

আজ ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন, কে হবেন পৌর পিতা ?
আজ ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন, কে হবেন পৌর পিতা ?

আজ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ইভিএম পদ্ধতিতে ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন। ৬ জন মেয়র প্রার্থী ছাড়াও পীরগঞ্জ পৌরসভায় প্রতিন্দন্দ্বিতা করছেন ৩২জন কাউন্সিলর ও ১২জন মহিলা কাউন্সিলর । কে হবেন পীরগঞ্জ পৌরপিতা তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে আজ ২৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

ঠাকুরগাঁও জেলা শহর থেকে প্রায় ৩০ কিলোমিটার দূরত্বে পীরগঞ্জ উপজেলা। এর অধীন পীরগঞ্জ পৌরসভা ৯টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত। প্রথম সারির এই পৌরসভায় ভোটার সংখ্যা ২১ হাজার ১’শত ৭৯ জন।
হিমালয় পাদদেশে উত্তরের এই জনপদে বইছে নির্বাচনী হাওয়া। তবে থেমে নাই প্রার্থীরা। শেষ মহূর্তেও পৌর এলাকার উন্নয়ন আর নানা প্রতিশ্রুতি নিয়ে ছুটছেন মেয়র প্রার্থীরা। নির্বাচনী প্রচারনায় মুখরিত হয়ে উঠেছে পৌরএলাকা। গোটা শহর পোষ্টারে ছেয়ে গেছে। মাইকিং আর মাইকিংয়ে মুখরিত হয়ে উঠেছে নির্বাচনী প্রচারনা। সাধারণ জনগণ মনে করছেন সুষ্ঠভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে এবং একজন যোগ্য মেয়র নির্বাচিত করবেন। আবার অনেকে জানালেন ভোট দিতে না পেরে তিক্ত অভিজ্ঞতার কথা। সঠিক ভাবে ভোট দিতে পারেন এমন প্রত্যাশার কথা জানালেন পৌরবাসী।



পৌরএলাকার বাসিন্দা সফিকুল ইসলাম জানান পীরগঞ্জ পৌরসভা একটি প্রথম সারির পৌরসভা। কিন্তু সে অনুযায়ী কোন কাজ হয়নি। কোন ড্রেনেজ ব্যবস্থা নাই, রাস্তা-ঘাটের অবস্থা ভালো না, দূর্নীতিতে ভরে গেছে পৌরসভাটি। একই কথা জানান রবিউল ইসলাম, সালমা বেগমসহ অনেকে।

রেজিনা বেগম বলেন নির্বাচন যদি সুষ্ঠু হয় তাহলে আমরা সকলে পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পারবো। কিন্তু গত নির্বাচনে ভোট দিতে গিয়ে বিড়ম্বনার শিকার হয়েছিলাম। ভোট আমার নাগরিক অধিকার, আর এই ভোট যদি দিতে না পারি তাহলে এরমতো দুঃখজনক আর হতে পারে না। একই কথা জানান জাকির হোসেন, মজিবর রহমানসহ অনেকে।

আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী বর্তমান মেয়র কছিরুল আলম জানান দলীয় মনোনয়নে নৌকা মার্কা নিয়ে নির্বাচন করছি। আমাকে বেকায়দায় ফেলার জন্য একটি মহল বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে দাঁড় করিয়ে দিয়েছে। তিনি আরো বলে যদি নৌকা মার্কার কোন বিপর্যয় হয় তাহলে এর জন্য দায়ী থাকবেন সাবেক এমপি ।

বিএনপি মনোনিত মেয়র প্রার্থী রেজাউল করিম রেজা বলেন একটা অনিশ্চয়তার মধ্য দিয়ে বিএনপি নির্বাচন করছে। যদি সুষ্ঠু নির্বাচন হয় তাহলে বিএনপির বিজয় নিশ্চিত।

জাতীয়পার্টি মনোনিত মেয়র প্রার্থী অধ্যাপক তৈয়ব আলী বলেন জাতীয় পার্টিতে কোন প্রতিদ্বন্দী প্রার্থী না থাকায় সুশিক্ষিত মানুষসহ সকলে আমাকে ২৮ তারিখে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন।

বিদ্রোহী সতন্ত্র প্রার্থী একরামুল হক বলেন পৌরসভা একটা সেবা মূলক প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠানটিকে দূর্নীতি মুক্ত, জনমানুষের প্রতিষ্ঠান ও মডেল পৌরসভা হিসাবে গড়ে তোলার অঙ্গিকার করেছি। জনগন আমার সাথে আছে তাই ২৮ তারিখের নির্বাচনে বিপুল ভোটে বিজয়ী হওয়ার প্রত্যাশা জানান।

অপর দুই জন মেয়র প্রাথী হলেন বিএনপি’র বিদ্রোহী প্রার্থী জয়নাল আবেদীন এবং ইসলাম আন্দোলন বাংলাদেশের পৌর প্রচার প্রকাশনা সম্পাদক হাফিজুর রহমান।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার রেজাউলক করিম জানান কোন রকম সহিংসতা ছাড়াই আচরণ বিধি লংঘনের খবর পাওয়া যায়নি। কোন অভিযোগ থাকলে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পীরগঞ্জের মানুষ উৎসব মুখর পরিবেশে ভোট দিতে পারবেন বলে তিনি।

জেলা নির্বাচন অফিসার ও রির্টানিং কর্মকর্তা জিলহাজ উদ্দীন জানান এই প্রথম ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট হবে পীরগঞ্জ পৌরসভায়। তাই সকল প্রস্তুতি আগে ভাগেই সম্পন্ন করা হয়েছে। আগামী ২৮ ডিসেম্বর জনগণকে সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দেয়ার কথা জানালেন।

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
মরহুম খােরশেদ আলম চৌধুরী স্মৃতি ব্যডমিন্টন টুর্নামেন্ট ২০-২১ ফাইনাল খেলা উদযাপিত!

Development by: webnewsdesign.com