Rz Rasel
০ দিন পূর্বে
10:31 am
বিনা অনুমতিতে শহীদ কাদরীর বই প্রকাশনা বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন
১ দিন পূর্বে
4:03 pm
পুরুষের অনুমতি ছাড়াই এবার ব্যবসা করবে সৌদি নারীরা
১ দিন পূর্বে
3:18 pm
চ্যাম্পিয়নস লিগের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে হিগুয়েনকে নিয়ে শঙ্কা
১ দিন পূর্বে
3:12 pm
শিক্ষার্থী নয়, ক্লাসরুমে ছাগল ঘুরতে দেখলেন শিক্ষামন্ত্রী!
১ দিন পূর্বে
3:10 pm
নেটদুনিয়ায় আগুন ধরাল ক্যাটরিনার দুঃসাহসিক ছবি!
১ দিন পূর্বে
3:09 pm
নিজের নাম্বার লুকিয়ে ব্যবহার করুন হোয়্যাটসঅ্যাপ
১ দিন পূর্বে
3:07 pm
চোখের নিচের কালো দাগ সমস্যায় করণীয়
১ দিন পূর্বে
3:05 pm
বলিউডে আসছে আরেক তারকা সন্তান
১ দিন পূর্বে
3:04 pm
যে কারণে ডান দিকেই ঘোরে সব ঘড়ির কাঁটা!
১ দিন পূর্বে
3:02 pm
সঙ্গী অসচ্চরিত্রের কিনা বুঝবেন যে ৪টি উপায়ে
১ দিন পূর্বে
2:58 pm
মালয়েশিয়ায় ১৭ বাংলাদেশি আটক
১ দিন পূর্বে
2:38 pm
যৌন মিলন করলে মেয়েরা বেশি মজা পায়!
১ দিন পূর্বে
2:30 pm
ভোরে যৌন মিলন করলে কি হয় জানেন?
১ দিন পূর্বে
2:22 pm
বাড়তি মেদ কমাবে যৌন মিলন
১ দিন পূর্বে
2:14 pm
যৌন মিলন মধুর করতে
১ দিন পূর্বে
2:01 pm
এখনও পালিয়ে আসছে রোহিঙ্গারা
১ দিন পূর্বে
1:52 pm
২১ ফেব্রুয়ারিতে চার স্তরের নিরাপত্তা থাকবে: ডিএমপি কমিশনার
১ দিন পূর্বে
1:27 pm
সিংহীর কোলে আদরে বড় হচ্ছে হরিণ শাবক!
১ দিন পূর্বে
1:14 pm
ন্যূনতম আইনি সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছেন না খালেদা: ফখরুল
১ দিন পূর্বে
1:11 pm
স্ক্যানার মেশিনে ঢুকে পড়লেন চীনা নারী!
১ দিন পূর্বে
1:07 pm
৪জি যুগে বাংলাদেশের অভিষেক আজ
১ দিন পূর্বে
1:05 pm
স্মার্টফোনে পর্ন! সতর্ক থাকুন
১ দিন পূর্বে
1:04 pm
‘নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ফলাফল ভিন্ন হতে পারতো’
১ দিন পূর্বে
1:01 pm
সোশ্যাল মিডিয়ায় উত্তাপ ছড়াচ্ছে ক্যাটরিনার দুঃসাহসিক ছবি
১ দিন পূর্বে
1:00 pm
মমর ‘উল্টো পিঠে ভালবাসা’
যে দুটি কারাগারের নাম শুনলেই আতঙ্কে বুক কাঁপে বন্দীদের

নানা অপরাধে বন্দী হন অপরাধীরা। অনেক সময় আক্রোশের শিকার হয়েও অনেকে বন্দী হন। কারাগার সংশোধনাগার না হয়ে যখন নির্যাতন সেল বা নির্যাতন কেন্দ্র হয়ে ওঠে তখন কারাবন্দীদের জীবন হয়ে ওঠে দুর্বিষহ। বন্দীদের ওপর নির্মম, নিষ্ঠুর নির্যাতন চালানোর জন্য কুখ্যাত এসব কারাগার।

ব্রাজিলের কারানদিরু

কুখ্যাত কারাগারের একটি কারানদিরু। ১৯৯২ সালে বন্দী নির্যাতনের ঘটনা এখনো বিশ্ববাসীকে আতঙ্কিত করে। কারারক্ষীদের হাতে প্রাণ হারান প্রায় ১ হাজার ৩০০ বন্দী। এই কারাগারের ভলান্টারি এক চিকিৎসক জানান, কারাগারের ৪৬ বছরের ইতিহাসে কত বন্দী যে নির্যাতনের শিকার হয়ে মারা গেছেন তার ঠিক চিত্র দেওয়া কঠিন। ব্রাজিলের এই কারাগারে বন্দীদের বেশির ভাগই ছিল খুনি ও মাদক ব্যবসায়ী। কারাগারে তাদের খাবার দেওয়া হতো না। লাঠি দিয়ে পেটানো হতো নিয়মিত। সামান্য বিষয়েই তাদের বেধড়ক পিটিয়ে হাত-পা ভেঙে দেওয়া ছিল মামুলি ব্যাপার। বন্দীদের মধ্যে কেউ প্রতিবাদ করতে এগিয়ে এলে তার পরিণতি হতো করুণ। রোদের মধ্যে খালি গায়ে তাদের মাঠে শুইয়ে রাখা হতো। কেউ পানি চাইলে, গরম পানি দিয়ে গোসল করিয়ে দেওয়ার অভিযোগও রয়েছে। পিটিয়ে রক্তাক্ত করে ফেলা ও বন্দীকে মেরে ফেলার ঘটনায় অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বন্দীদের মানবাধিকার নিয়ে প্রশ্ন তুললে তার ঠিক উত্তর দিতে পারেনি ব্রাজিলের সরকার। অনেক সমালোচনার পর ২০০২ সালে এই কারাগার বন্ধ করে দেওয়া হয়।

তাদমর বন্দীশালা

সিরিয়ার তাদমর মিলিটারি বন্দীশালাকে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ‘বিশ্বের সবচেয়ে অত্যাচারী বন্দীশালা’ হিসেবে বর্ণনা করেছে। কারারক্ষীরা ধমক ছাড়া কথাই বলেন না এখানে। খাবার-পানি কিছু চাইলে উল্টো পেটানো শুরু হয়। বাথরুমের ভিতরেও বন্দীদের রাতে ঘুমাতে বাধ্য করা হতো। বন্দীরা কোনো কষ্টে বলতে এলেই লোহার পাইপ দিয়ে পেটানো হতো এখানে। অভিযোগ রয়েছে ১৯৮০ সালে এই কারাগারে প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে বন্দী হত্যাযজ্ঞ চালানো হয়। অন্য বন্দীদের সামনেই হাত-পা বেঁধে একজন একজন করে বন্দীকে কুপিয়ে মারার কথাও অনেকে জানিয়েছেন মিডিয়াকে!