Rz Rasel
১ দিন পূর্বে
6:05 pm
রাবিতে স্থগিতকৃত দশম সমাবর্তন মার্চে
২ দিন পূর্বে
11:56 pm
‘মৃত্তিকা প্রতিবন্ধীবান্ধব সাংবাদিকতা অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন ভৈরবের সুমন মোল্লা
২ দিন পূর্বে
11:48 pm
ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা ২০১৮-এ অপো এফ ৫ বিজয়ীদের নাম ঘোষণা
২ দিন পূর্বে
11:43 pm
মোরেলগঞ্জে,শরণখোলায় কমিউনিটি ক্লিনিক কর্মীদের তিন দিনব্যাপী অবস্থান কর্মসূচি
২ দিন পূর্বে
11:39 pm
শ্রীমঙ্গলে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহের সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ
২ দিন পূর্বে
11:28 pm
তানোরে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা
২ দিন পূর্বে
11:23 pm
তানোরে শিশুদের শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন বিভাগীয় কমিশনার
২ দিন পূর্বে
11:16 pm
বৈষম্যহীন শিক্ষা ব্যবস্থা ও অসাম্প্রদায়িক,গণতান্ত্রিক দেশ গড়ার কারিগর ছিলেন শহীদ আসাদ
২ দিন পূর্বে
10:53 pm
প্রেমিকের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক ইনস্টাগ্রামে লাইভ, তারপর…
২ দিন পূর্বে
8:09 pm
এই কলগার্লের জন্যই নাকি পদচ্যুত হয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী
২ দিন পূর্বে
8:07 pm
২০ প্রেতাত্মার সঙ্গে ‘যৌন সম্পর্ক’ এই ব্রিটিশ যুবতীর!
২ দিন পূর্বে
7:40 pm
অন্তরঙ্গ সময়ে টিভির নেশায় বুঁদ প্রেমিকা, ফলাফল…!
২ দিন পূর্বে
5:58 pm
মা হচ্ছেন প্রীতি জিনতা!
২ দিন পূর্বে
5:33 pm
খরচ বাঁচাতে ৮ জোড়া প্যান্ট ও ১০ জামা পরে বিমানবন্দরে যুবক
২ দিন পূর্বে
5:22 pm
‘বিএনপির কোনো নীতি আদর্শ নেই’
২ দিন পূর্বে
5:19 pm
যে ৮টি উপকারে আসতে পারে ফিটকিরি
২ দিন পূর্বে
5:17 pm
অমিতাভ ও মাধুরীদের সারিতে সানি লিওন
২ দিন পূর্বে
5:10 pm
ভারত বিরাটের ওপর অতিরিক্ত নির্ভরশীল : রাবাদা
২ দিন পূর্বে
5:08 pm
অবশেষে ঢেকে দেওয়া হল দীপিকার উন্মুক্ত পেট (ভিডিও)
২ দিন পূর্বে
5:05 pm
আসামে ভূমিকম্পের আঘাত
২ দিন পূর্বে
5:00 pm
রেডিওতে বাংরেজি বন্ধের নির্দেশ দিলেন তারানা
২ দিন পূর্বে
4:50 pm
চলন্ত গাড়ির জানালার বাইরে টপলেস নারী! হঠাৎ…
২ দিন পূর্বে
4:46 pm
বিশ্বে প্রথমবারের মতো চালু হলো পুতুলের যৌনপল্লী!(ভিডিও)
২ দিন পূর্বে
4:43 pm
এবার সন্তানের জন্ম দেবে সেক্স ডল ‘সামান্তা’
২ দিন পূর্বে
4:34 pm
দুর্বল হৃদয়ের জন্য নয় এই ৫ মিনিটের ভিডিও !
তানোরে আ”লীগের তিন স্থানে সভা নিয়ে তৃনমুলে চরম উত্তেজনা

রাজশাহীর তানোরে বঙ্গবন্ধুর স্ব দেশ প্রত্যাবর্তন দিবসকে কেন্দ্র করে তিনটি সভা করার আয়োজন করেছেন বলে দলীয় সুত্র থেকে নিশ্চিত হওয়া গেছে । তবে সভার আগের দিন উপজেলা আ”লীগ সভাপতি আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনায়ন প্রত্যাশী মেয়র গোলাম রাব্বানীর সভার স্থান মুণ্ডুমালা স্কুল মাঠ হলেও দেয়া হয়েছে বাধা প্রদান।

মঞ্চ করার আগ মুহূর্তে স্কুল কর্তৃপক্ষ সরাসরি বলে দেন এমপির নিষেধ আছে মাঠ ব্যবহার করতে দেয়া যাবেনা । বাধ্য হয়ে মুণ্ডুমালা গর“ হাটে সভার স্থান ঠিক করা হয় বলে নিশ্চিত করেন । এতে করে তৃনমুলে ছড়িয়ে পড়েছে চরম উত্তেজনা । ঘটতে পারে নিজেদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা । জানা গেছে আগামী ১০ জানুয়ারি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্ব দেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে তিন গ্রুপ তিন জায়গায় সভা ডেকেছেন ।

সভা সফল করতে গত সোমবার বিকালের দিকে সাংসদ বিরোধী হিসেবে পরিচিত ৭মনোনায়ন প্রত্যাশীরা মুণ্ডুমালা পৌর কার্যালয়ে প্রস্তুতি সভা ও এলাকায় গন সংযোগ করেছেন । এছাড়াও সাংসদ অনুসারী হিসেবে পরিচিত উপজেলা আ”লীগ সাধারন সম্পাদক ও যুবলীগ সভাপতি কলমা ইউপির চেয়ারম্যান গত সোমবার তানোর পৌর সদর গোল­াপাড়া বাজার¯’ দলীয় কার্যালয়ে প্রস্তুতি সভা করেন ।

এদিকে সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি রবিন সরকার ডেকেছেন আলাদা সভা । একই দিন তিন জায়গায় সভা আহ্বান করায় তৃনমুলে ছড়িয়ে পড়েছে চরম উত্তেজনা। একাধিক তৃণমূল কর্মীরা বলেন গত ৪ জানুয়ারি ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করা হয় থানা মোড়ে । সে সভায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতাদের নাম প্রকাশ করা মাত্রই শুর“ হয় হাতাহাতি ।

সে সভায় প্রধান অথিতি করা হয় উপজেলা আ”লীগ সাধারন সম্পাদক কে এবং বিশেষ অথিতি ছিলেন সাংসদ ভাতিজা যুবলীগ সভাপতি । সভায় আহবান করা হয়নি উপজেলা আ”লীগ সভাপতি মেয়র গোলাম রাব্বানীকে। এরই জেরে তাঁরা আলাদা আলাদাভাবে সভা আহবান করেছেন । তাদের দন্দের কারনে তৃনমুল কোন দিকে যাবে এমন নানা প্রশ্ন জন্ম দিয়েছে নেতা কর্মীদের মাঝে। তাদের জন্য বিভক্ত হয়ে পড়ছে তৃনমুল ।

আর এসব দন্দনের মুলেই উপজেলা আ”লীগ সাধারন সম্পাদক ও যুবলীগ সভাপতি । তাদের জন্যই শান্তিপ্রিয় তানোর আ”লীগে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে বলে একাধিক নেতা কর্মীরা জানান । ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রবিন জানান ঘুনে ধরা তানোরের ছাত্রলীগকে জাগিয়ে তুলেছিলাম । অথচ কোন নিয়মের তোয়াক্কা না করে প্রতিহিংসা ভাবে গত বছরের জুলাই মাসে আমাকে বাদ দিয়ে কোন ধরনের কাউন্সিল ছাড়াই ফেসবুকে কমিটি ঘোষনা করা হয় ।

গত বছরের আগস্ট মাসে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে ১৭ আগস্ট শোক র‌্যালি ও আলোচনা সভা করা হয় । সে সভায় সাংসদ ও তার ভাতিজা এবং অনুপ্রবেশ কারিরা সভায় লাঠি সোটা নিয়ে হামলা করে আমাকে পুলিশ দিয়ে গ্রেপ্তার করিয়ে দেন সাংসদ । জন্মের পর থেকে আ”লীগ করে আসছি । শরীরের প্রতিটি শিরায় বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নিয়ে রাজনীতি করি । বঙ্গবন্ধুর স্ব দেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের সভা ডাকা হয়েছে শান্তিপূর্ণ ভাবে পালন করা হবে।

দল কারো একক সম্পত্তি না যে তারাই সব করবে আর আমরা ঘরে বসে থাকব।এদিকে উপজেলা আ”লীগ সভাপতি মেয়র রাব্বানীসহ ৭মনোনায়ন প্রত্যাশী বঙ্গবন্ধুর স্ব দেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে মুণ্ডুমালা স্কুল মাঠে বিশাল সভার আয়োজন করেন । কিš‘ মঞ্চ তৈরীর সময় মঙ্গলবার দুপুরের দিকে স্কুল কর্তৃপক্ষকে সাংসদ ফার“ক চৌধুরী মাঠে জায়গা দিতে নিষেধ করেন । যার কারনে মুণ্ডুমালা স্কুলের পরিবর্তে সভা আহবান করা হয় মুণ্ডুমালা গর“ হাটে ।

এমন খবর মুহূর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে নেতা কর্মীরা চরম উত্তেজিত হয়ে পড়েন । মুণ্ডুমালা পৌর এলাকার একাধিক নেতা জানান সাংসদ ও উপজেলা আ”লীগ সাধারন সম্পাদক এবং উপজেলা যুবলীগ সভাপতি যে কোন ধরনের সভা আহবান করলে ডাকা হচ্ছেনা মেয়র রাব্বানীকে। তাই তিনি এক প্রকার বাধ্য হয়ে বঙ্গবন্ধুর স্ব দেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালনের আয়োজন করেন মুণ্ডুমালা স্কুল মাঠে । কিন্তু সাংসদ স্কুল কমিটিকে মাঠ দিতে নিষেধ করে দেন ।

সাংসদ অনুসারীরা সভা করবেন থানা মোড় চত্বরে । সেখানে রাস্তা ব্লক করে আলোচনা সভা করবেন । যেখানে কেন্দ্রীয় আ”লীগ নেতাদের কঠোর নির্দেশ সাধারন জনগন কে বেকায়দায় ফেলে রাস্তায় কোন ধরনের সভা করা যাবেনা। সাংসদ অনুসারীরা থানা মোড়ে সভা করলেও কোন সমস্যা নেই । মেয়র স্কুল মাঠে করলে সাংসদের গায়ে ঘা লাগছে। আসলে রাজনৈতিক প্রজ্ঞা না থাকলে যা হয় সেটাই হচ্ছে। আবার সাংসদের সভায় ৭ ইউপি শত শত উপকার ভোগী এবং শিক্ষদের আসতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

তার ডাকে নেতা কর্মী যাবেনা ভেবেই এমনটি করছেন বলে একাধিক নেতাকর্মীরা নিশ্চিত করেন । উপজেলা আ”লীগ সভাপতি মুণ্ডুমালা পৌর মেয়র আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনায়ন প্রত্যাশী মেয়র গোলাম রাব্বানী জানান ১০ জানুয়ারি সভা আহবান করা হলেও আমাকে কোন কিছুই জানানো হয়নি। বাধ্য হয়ে মুণ্ডুমালা পৌর এলাকায় বঙ্গবন্ধুর স্ব দেশ প্রত্যাবর্তন দিবস জাক জমক ভাবে পালন করা হবে।বিশাল আয়োজনে স্ব দেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালনের জন্য মুণ্ডুমালা স্কুল মাঠে মঞ্চ তৈরীর সময় কর্তৃপক্ষ সাব জানিয়ে দেন এমপির নিষেধ আছে জায়গা দেয়া যাবেনা ।

সভায় প্রায় ১২ থেকে ১৫ হাজার নেতা কর্মীর উপস্তিত হবার কথা । কিন্তু প্রথম থেকে দেয়া হচ্ছে বাঁধা । যতই বাঁধা আসুক সকল বাঁধা উপেক্ষা করে সভা শান্তিপূর্ণ ভাবে সফল করা হবে। তৃনমুলের দাবি একই দিন তিন জায়গায় সভা আহবান করা হয়েছে এ সভায় গেলে ও নারাজ আরেক জনের সভায় গেলে অন্যজন নারাজ । এজন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছি তাদের দন্দ না মেটা পর্যন্ত কোন সভায় অংশ নিব না। বেশ কিছু সিনিয়র নেতারা জানান তানোরে আ”লীগে এমন ঘটনা স্বাধীনতার পর থেকে ঘটেনি। শুধু সাংসদের একগুয়েমী নেতৃত্বের কারনে এমন অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।

আমরা যাব কোথায় । দ্রুত এসব দন্দ নিরোসান করে সবাই যাতে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করা যায় এজন্য কেন্দ্রীয় নেতাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন । সাংসদ এক আলাপ চারিতায় জানিয়েছিলেন আমি রাজশাহীতে আছি ৭স্টারের নিরাপত্তা আছে ঢাকায় যাব তাদের কোন নিরাপত্তা থাকবেনা । সাংসদের এধরনের কথায় চরম বিস্ময় প্রকাশ করেন সিনিয়র নেতারা ।

জেলা আ”লীগ কমিটির প্রধান উপদেষ্টা আগামী নির্বাচনে মনোনায়ন প্রত্যাশী সাবেক অতিরিক্ত আইজিপি বীর মুক্তিযোদ্ধা মতিউর রহমান জানান আমরা ৭ মনোনায়ন প্রত্যাশী বঙ্গবন্ধুর স্ব দেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালনের জন্য মুণ্ডুমালা স্কুল মাঠে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয় । কিন্তু সাংসদ সেখানে বাঁধা দিয়ে মাঠ ব্যবহার করতে নিষেধ করে দেন ।

আমরাতো বঙ্গবন্ধুর স্ব দেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালনের সভা ডেকেছি এতে তার এত জালা কেন । আমাদের প্রতিটি সভাতে প্রশাসন কে দিয়ে বাধা প্রদান করছেন । জানিনা তিনি কেন এসব করে বিরোধীদের হাসির খোরাক করে দিচ্ছেন। যে মনোনায়ন পাক সবাইকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে ।