Rz Rasel
১ দিন পূর্বে
11:56 pm
‘মৃত্তিকা প্রতিবন্ধীবান্ধব সাংবাদিকতা অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন ভৈরবের সুমন মোল্লা
১ দিন পূর্বে
11:48 pm
ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা ২০১৮-এ অপো এফ ৫ বিজয়ীদের নাম ঘোষণা
১ দিন পূর্বে
11:43 pm
মোরেলগঞ্জে,শরণখোলায় কমিউনিটি ক্লিনিক কর্মীদের তিন দিনব্যাপী অবস্থান কর্মসূচি
১ দিন পূর্বে
11:39 pm
শ্রীমঙ্গলে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহের সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ
১ দিন পূর্বে
11:28 pm
তানোরে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা
১ দিন পূর্বে
11:23 pm
তানোরে শিশুদের শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন বিভাগীয় কমিশনার
১ দিন পূর্বে
11:16 pm
বৈষম্যহীন শিক্ষা ব্যবস্থা ও অসাম্প্রদায়িক,গণতান্ত্রিক দেশ গড়ার কারিগর ছিলেন শহীদ আসাদ
১ দিন পূর্বে
10:53 pm
প্রেমিকের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক ইনস্টাগ্রামে লাইভ, তারপর…
১ দিন পূর্বে
8:09 pm
এই কলগার্লের জন্যই নাকি পদচ্যুত হয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী
১ দিন পূর্বে
8:07 pm
২০ প্রেতাত্মার সঙ্গে ‘যৌন সম্পর্ক’ এই ব্রিটিশ যুবতীর!
১ দিন পূর্বে
7:40 pm
অন্তরঙ্গ সময়ে টিভির নেশায় বুঁদ প্রেমিকা, ফলাফল…!
১ দিন পূর্বে
5:58 pm
মা হচ্ছেন প্রীতি জিনতা!
১ দিন পূর্বে
5:33 pm
খরচ বাঁচাতে ৮ জোড়া প্যান্ট ও ১০ জামা পরে বিমানবন্দরে যুবক
১ দিন পূর্বে
5:22 pm
‘বিএনপির কোনো নীতি আদর্শ নেই’
১ দিন পূর্বে
5:19 pm
যে ৮টি উপকারে আসতে পারে ফিটকিরি
১ দিন পূর্বে
5:17 pm
অমিতাভ ও মাধুরীদের সারিতে সানি লিওন
১ দিন পূর্বে
5:10 pm
ভারত বিরাটের ওপর অতিরিক্ত নির্ভরশীল : রাবাদা
১ দিন পূর্বে
5:08 pm
অবশেষে ঢেকে দেওয়া হল দীপিকার উন্মুক্ত পেট (ভিডিও)
১ দিন পূর্বে
5:05 pm
আসামে ভূমিকম্পের আঘাত
১ দিন পূর্বে
5:00 pm
রেডিওতে বাংরেজি বন্ধের নির্দেশ দিলেন তারানা
১ দিন পূর্বে
4:50 pm
চলন্ত গাড়ির জানালার বাইরে টপলেস নারী! হঠাৎ…
১ দিন পূর্বে
4:46 pm
বিশ্বে প্রথমবারের মতো চালু হলো পুতুলের যৌনপল্লী!(ভিডিও)
১ দিন পূর্বে
4:43 pm
এবার সন্তানের জন্ম দেবে সেক্স ডল ‘সামান্তা’
১ দিন পূর্বে
4:34 pm
দুর্বল হৃদয়ের জন্য নয় এই ৫ মিনিটের ভিডিও !
১ দিন পূর্বে
4:29 pm
ক্যামেরার সামনের সেই সব অভিজ্ঞতা কেমন, জানালেন পর্নতারকা!
গৌরবের ৭১ বছরে ছাত্রলীগ

গৌরবের ৭১ বছরে ছাত্রলীগ
বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। ইতিহাসের পাতায় স্বর্ণাক্ষরে লেখা একটি নাম। চরম আত্মত্যাগের বিনিময়ে দেশমাতৃকার জন্য বিভিন্ন সময় ছিনিয়ে এনেছে বিজয়। শাসক শ্রেণির বুলেটকে উপেক্ষা করে ঐক্যবদ্ধ করেছে বাংলার ছাত্র সমাজকে। কঠিন লড়াই চালিয়েছে, স্বগৌরবে উড়িয়েছে বিজয়ের কেতন। ১৯৪৭ সালে দেশ ভাগের পর সময়ের প্রয়োজনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে এ সংগঠনের জন্ম। এরপর বাঙালি জাতির সকল অধিকার আদায়ের আন্দোলন-সংগ্রামে সংগঠনটি নেতৃত্ব দিয়েছে সামনের সারিতে থেকে। ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক হলে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করা এ সংগঠনটি বর্তমান সময়ে দেশের সর্ববৃহৎ ছাত্র সংগঠন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাত ধরে স্বল্প পরিসরে যাত্রা শুরু করা এর সংগঠনের বর্তমান সদস্য সংখ্যা প্রায় ‘১ কোটি’ বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. সাইফুর রহমান সোহাগ। প্রতিষ্ঠার পর থেকে নানা ঘাত-প্রতিঘাত পেরিয়ে একে একে ৭০ বছর অতিবাহিত করেছে এ সংগঠন। জন্ম দিয়েছে অজস্র ইতিহাস। বাঙালি জাতিসত্তার সঙ্গে মিশে থেকে জাতির উত্থানের সব ইতিহাসের প্রত্যক্ষ সাক্ষী বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। ভাষা আন্দোলন থেকে মুক্তিযুদ্ধ, এরপর স্বৈরাচার এরশাদের পতন থেকে ১/১১ সেনাসমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের কূটকৌশল এবং সেনাশাসন থেকে দেশকে রক্ষা করার মাধ্যমে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের যে আন্দোলন-সংগ্রাম রয়েছে তার সঙ্গে ছাত্রলীগের নাম অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত। আজ ৪ জানুয়ারি, বৃহস্পতিবার, দেশের সর্ব বৃহৎ এ সংগঠনের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। পা রাখছে গৌরবের ৭১ বছরে। দিবসটি উপলক্ষে বরাবরের মতো এবারও নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে ছাত্রলীগ। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, আজ সকাল সাড়ে ৬টায় সংগঠনটির সব সাংগঠনিক কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন। সকাল সাড়ে ৭টায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন, সকাল সাড়ে ১০টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হলে কেক কাটা। এছাড়া শুধুমাত্র ঢাকার মধ্যে অবস্থিত ইউনিটসমূহ ছাড়া দেশের অন্য সব ইউনিটের আনন্দ র‌্যালি, ৫ জানুয়ারি গণতন্ত্রের বিজয় দিবস উদযাপন। ৬ জানুয়ারি কেন্দ্রীয় সংগঠনের আনন্দ র‌্যালি। ৮ জানুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বোপার্জিত স্বাধীনতা চত্বরে দুঃস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ। ৯ জানুয়ারি স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি। ১১ জানুয়ারি সকাল ১০টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলায় কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এ অঞ্চলের সকল গণতান্ত্রিক ও প্রগতিশীল সংগ্রামের গর্বিত অংশীদার। নেতৃত্ব দিয়েছে সামনে থেকে, চরম আত্মত্যাগের বিনিময়ে ছিনিয়ে এনেছে বিজয়। দীর্ঘ রাজনৈতিক পরিক্রমায় ৫২-এর ভাষা আন্দোলনে ছাত্রলীগের নেতৃত্বে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে বুকের তাজা রক্তের বিনিময়ে বাঙালির ভাষার অধিকার প্রতিষ্ঠা, ৫৪-এর প্রাদেশিক পরিষদের নির্বাচনে যুক্তফ্রন্টের বিজয়, ৫৮-এর আইয়ুববিরোধী আন্দোলন, ৬২ সালের শিক্ষা আন্দোলন, ৬৬-এর ৬-দফার পক্ষে গণঅংশগ্রহণের মাধ্যমে মুক্তির সনদ হিসেবে এই দাবিকে প্রতিষ্ঠা, ৬৯-এর গণঅভ্যুত্থানে ছাত্রলীগের নেতৃত্বে পাক শাসকদের পদত্যাগে বাধ্য এবং বন্দীদশা থেকে বঙ্গবন্ধুকে মুক্ত করা, ৭০-এর নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নিরঙ্কুশ জয়লাভ এবং ৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধে অসংখ্য নেতাকর্মী সম্মুখসমরে অংশগ্রহণ করে লাল সবুজের পতাকা ছিনিয়ে আনতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে।
সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. সাইফুর রহমান সোহাগ বলেন, ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি প্রতিষ্ঠার পর থেকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ দীর্ঘ পথচলায় বাংলার মানুষের এবং ছাত্র সমাজের অধিকার আদায়ে কাজ করেছে। তারই ধারাবাহিকতায় আমরা পেয়েছি আমাদের ভাষা অধিকার এবং স্বাধীন বাংলাদেশ। এরপর গণতন্ত্র যখনই হুমকির মুখে পড়েছে তখনই ছাত্রলীগ আবির্ভূত হয়েছে ত্রাতার ভূমিকায়। এখন আমাদের লক্ষ্য বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার জন্যে জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ মোতাবেক কাজ করে যাওয়া। বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করা। সন্ত্রাস, মাদক ও জঙ্গিবাদ মুক্ত বাংলাদেশ গড়া।