Rz Rasel
১ দিন পূর্বে
1:29 pm
শাকিব খানের বয়স কত?
১ দিন পূর্বে
1:22 pm
প্রশ্নপত্র ফাঁস জাতির মেরুদণ্ড ধ্বংসের আলামত
১ দিন পূর্বে
1:20 pm
ভার্জিন বার্থ ! যৌন মিলন ছাড়াই মা হছেন নারীরা
১ দিন পূর্বে
1:18 pm
নেতাকর্মীদের ধৈর্যহারা না হওয়ার আহ্বান মির্জা ফখরুলের
১ দিন পূর্বে
1:10 pm
সকালে যৌন মিলন ডায়াবেটিক নিয়ন্ত্রনে সহায়ক
১ দিন পূর্বে
1:07 pm
মেয়েরা মিলনের জন্য পাগল হয়ে ওঠে কেন জানেন?
১ দিন পূর্বে
1:04 pm
বিয়ের আগে যৌন মিলন করলে কী হয়?
১ দিন পূর্বে
12:53 pm
যৌন জিবনে স্ত্রীর সাথে মধুর মিলন ও যৌন উত্তেজিত করার পদ্দতি
১ দিন পূর্বে
12:39 pm
সাপের সঙ্গে যুদ্ধে নেমেছে জাকার্তা!
১ দিন পূর্বে
12:36 pm
মৃত ব্যক্তির শুক্রাণু থেকে জন্ম নিল যমজ শিশু
১ দিন পূর্বে
12:33 pm
রাজধানীতে ইউলুপের বিম ভেঙে পড়ল রাস্তায়
১ দিন পূর্বে
12:29 pm
অাইসিইউতে অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ
১ দিন পূর্বে
12:27 pm
ভালোবাসায় মুগ্ধ মিম
১ দিন পূর্বে
12:22 pm
টি-টোয়েন্টির পর ওয়ানডে সিরিজও আফগানিস্তানের
১ দিন পূর্বে
12:20 pm
আমার আর শাকিবের ক্ষেত্রে উল্টোটা হলো: অপু
১ দিন পূর্বে
12:18 pm
‘বাঁচাও বাঁচাও’ বলছিলাম, কারণ আমি ডুবে যাচ্ছিলাম!
১ দিন পূর্বে
12:17 pm
খালেদার মুক্তির দাবিতে বিএনপির গণস্বাক্ষর সংগ্রহ কর্মসূচি
১ দিন পূর্বে
12:16 pm
খালেদা না পারলেও নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি: কাদের
১ দিন পূর্বে
12:13 pm
আরো তিন স্মার্টফোন আনছে অ্যাপেল
১ দিন পূর্বে
12:12 pm
যখন-তখন সেলফি, চিকিৎসার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের!
১ দিন পূর্বে
12:10 pm
এবার প্লেবয় মডেলের সাথে ট্রাম্পের সম্পর্ক নিয়ে তোলপাড়!
১ দিন পূর্বে
12:05 pm
অর্থের অভাবে আটকে গেছে সালমানের ছবির শ্যুটিং!
১ দিন পূর্বে
12:02 pm
নারী পুলিশকে প্রেমের প্রস্তাব যুবকের, অতঃপর…
১ দিন পূর্বে
11:59 am
ভালোবাসা দিবসে স্ত্রীর পিছনে লাঠি নিয়ে দৌড়াচ্ছেন স্বামী!
১ দিন পূর্বে
11:58 am
যে কারণে অনেকে ফেসবুকে আকর্ষণীয় ছবি দিতে আগ্রহী!
সারাবিশ্বে আজ পালিত হচ্ছে যেসব দিবস

পৃথিবীজুড়ে বিজ্ঞানের উন্নতির সাথে উন্নতি হচ্ছে দিবসেরও! এখন গড়ে বিশ্ব, দেশ বা এলাকা ভিত্তি ধরলে প্রায় ৪-৫টি করে দিবস পালিত হচ্ছে প্রতিদিন। আজ সারা বিশ্বে প্রায় ৪টি দিবস পালিত হচ্ছে। ঢাকা নিউজ এক্সপ্রেস এর পাঠকদের জন্য দিবসগুলো তুলে ধরা হলো... বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস সারা বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও নানা আয়োজনের মাধ্যমে দিবসটি পালন করা হচ্ছে। দিবসটি পালনে বাংলাদেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এক গবেষণায় দেখা গেছে, খাবার ও পানির মাধ্যমে যেসব রোগ ছড়ায়, তার প্রতি চারজনের একজন আক্রান্ত হন শুধু হাত না ধোয়ার কারণে। প্রতিদিন সাবান দিয়ে হাত ধোয়া অভ্যাসে পরিণত করতে এ দিনটি সারা বিশ্বের মানুষদের অনুপ্রাণিত ও সংগঠিত করে থাকে। পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বা ব্যক্তিগত স্বাস্থ্য চর্চার মাধ্যমে অনেক রোগ প্রতিরোধ করা সম্ভব। হাত ধোয়ার অভ্যাস পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বা ব্যক্তিগত স্বাস্থ্য চর্চার একটি প্রকৃষ্ট উদাহরণ। নিয়ম ও সময় মতো হাত ধোয়ার অভ্যাস গড়ে তুললে আমাশয়, টাইফয়েড, জন্ডিস, ডায়রিয়া ও কৃমিরোগসহ আরো অনেক জীবাণু দ্বারা সংক্রমণের সম্ভাবনা অনেকাংশে কমে যায়। ইউনিসেফের হিসাবে, বিশ্বে ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়ায় মারা যায় সবচেয়ে বেশি শিশু। নিয়মিত হাত ধোয়ার মাধ্যমে তাদের বড় একটি অংশকে এসব রোগ থেকে রক্ষা করা সম্ভব।

আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস :

প্রতি বছরের মতো এবারও জাতিসংঘের সদস্য দেশগুলোর সঙ্গে বাংলাদেশ দিবসটি পালিত হচ্ছে। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য 'নারীর স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ১৮’র নীচে বিয়ে নয়, আইন করে বাল্যবিয়ের স্বীকৃতি বন্ধ হোক'।

উল্লেখ্য, ২০০৭ সালের ১৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভায় ১৫ অক্টোবর আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস পালনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। ২০০৮ সাল থেকে জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্রগুলো আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস উদযাপন করে আসছে।

এর আগে ১৯৯৫ সালে বেইজিংয়ে অনুষ্ঠিত জাতিসংঘের চতুর্থ নারী সম্মেলনে ১৫ অক্টোবরকে আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস হিসেবে পালনের প্রস্তাব গৃহীত হয়। ১৯৯৭ সাল থেকে জেনেভাভিত্তিক আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা উইমেন ওয়ার্ল্ড সামিট ফাউন্ডেশন (ডাব্লিউডাব্লিউএসএফ) আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস পালনের জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশে উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচি পালন করে আসছে। ১৯৯৮ সাল থেকে বিভিন্ন দেশে আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস পালন করা হয়।

বিশ্ব সাদাছড়ি নিরাপত্তা দিবস

সারাবিশ্বের মতো বাংলাদেশেও নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে দিবসটি পালন করা হচ্ছে। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে ‘সাদাছড়ি নিশ্চিত ব্যবহার, এই দিবসের অঙ্গীকার’।

দিবসটি উপলক্ষে সামাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়, সমাজসেবা অধিদফতর, জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশনসহ বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। এ উপলক্ষে সকাল ১০টায় বেতার ভবনের সামনে থেকে শোভাযাত্রা ও বেলা ১১টায় সামাজসেবা অধিদফতরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়াও বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা সচেতনামূলক অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করেছে।

সাদাছড়ি বহনকারী দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী ব্যক্তিকে নিরাপদে পথ চলতে সাহায্য করার উদ্দেশে সচেতনতা বাড়ানোই এই দিবসের লক্ষ্য। দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের নিরাপদে চলাফেরা নিশ্চিত করতে ১৯৬৯ সাল থেকে প্রতি বছর ১৫ অক্টোবর দিবসটি পালিত হচ্ছে।

উল্লেখ্য, বর্তমানে দেশে প্রায় ৪৮ লাখ দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী আছে। অপুষ্টি, টাইফয়েড, আমাশয়, ডায়রিয়া, পোলিও, এসিড নিক্ষেপসহ বিভিন্ন দুর্ঘটনায় দিন দিন দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শোক দিবস 

১৯৮৫ সালের ১৫ অক্টোবর রাতে জগন্নাথ হলে সংঘটিত মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় যে সকল ছাত্র, কর্মচারী ও অতিথি নিহত হয়েছেন তাদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য প্রতি বছর দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করা হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানিয়ে বলা হয়, শোক দিবস পালনের লক্ষ্যে গৃহীত কর্মসূচির মধ্য রয়েছে, সকাল ৬টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল হল ও প্রধান প্রধান ভবনে কালো পতাকা উত্তোলন, বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা অর্ধনমিত রাখা ও কালো ব্যাজ ধারণ।

সকাল সাড়ে ৭টায় অপরাজেয় বাংলার পাদদেশ থেকে শোক মিছিল সহকারে ছাত্র-শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জগন্নাথ হল স্মৃতিসৌধে গমন, পুষ্পস্তবক অর্পণ ও নীরবতা পালন।সকাল ৮টা থেকে ৯টা পর্যন্ত অক্টোবর স্মৃতি ভবনস্থ টিভি কক্ষে আলোচনা সভা, ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রীষ্টানদের প্রার্থনা সভা, বাদ আসর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ মসজিদুল জামিআসহ বিভিন্ন হলের মসজিদে নিহতদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত, সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত জগন্নাথ হল প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় নিহতদের তৈলচিত্র ও তৎসম্পর্কিত দ্রব্যাদি প্রদর্শন এবং সকালে জগন্নাথ হল প্রাঙ্গণে রক্তদান কর্মসূচি।

শোক দিবসের কর্মসূচির অংশ হিসেবে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় জগন্নাথ হল উপাসনালয়ে ভক্তিমূলক গানের অনুষ্ঠান, শোক সঙ্গীত ও কবিতা আবৃত্তি অনুষ্ঠিত হবে। ১৯৮৫ সালের ১৫ অক্টোবর প্রাচীন জগন্নাথ হলের একটি আবাসিক ভবনের ছাদ ধ্বসে পড়লে সংঘটিত হয় মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। এতে প্রাণ হারায় ৩৯ জন ছাত্র, কর্মচারী ও অতিথি। এরপর থেকেই প্রতিবছর দিনটিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শোক দিবস হিসেবে পালন করা হয়। পরবর্তীকালে ওই দুর্ঘটনায় নিহতদের সম্মানে জগন্নাথ হলে অক্টোবর স্মৃতি ভবন নামে একটি ভবন নির্মিত হয়।