Rz Rasel
০ দিন পূর্বে
10:31 am
বিনা অনুমতিতে শহীদ কাদরীর বই প্রকাশনা বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন
১ দিন পূর্বে
4:03 pm
পুরুষের অনুমতি ছাড়াই এবার ব্যবসা করবে সৌদি নারীরা
১ দিন পূর্বে
3:18 pm
চ্যাম্পিয়নস লিগের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে হিগুয়েনকে নিয়ে শঙ্কা
১ দিন পূর্বে
3:12 pm
শিক্ষার্থী নয়, ক্লাসরুমে ছাগল ঘুরতে দেখলেন শিক্ষামন্ত্রী!
১ দিন পূর্বে
3:10 pm
নেটদুনিয়ায় আগুন ধরাল ক্যাটরিনার দুঃসাহসিক ছবি!
১ দিন পূর্বে
3:09 pm
নিজের নাম্বার লুকিয়ে ব্যবহার করুন হোয়্যাটসঅ্যাপ
১ দিন পূর্বে
3:07 pm
চোখের নিচের কালো দাগ সমস্যায় করণীয়
১ দিন পূর্বে
3:05 pm
বলিউডে আসছে আরেক তারকা সন্তান
১ দিন পূর্বে
3:04 pm
যে কারণে ডান দিকেই ঘোরে সব ঘড়ির কাঁটা!
১ দিন পূর্বে
3:02 pm
সঙ্গী অসচ্চরিত্রের কিনা বুঝবেন যে ৪টি উপায়ে
১ দিন পূর্বে
2:58 pm
মালয়েশিয়ায় ১৭ বাংলাদেশি আটক
১ দিন পূর্বে
2:38 pm
যৌন মিলন করলে মেয়েরা বেশি মজা পায়!
১ দিন পূর্বে
2:30 pm
ভোরে যৌন মিলন করলে কি হয় জানেন?
১ দিন পূর্বে
2:22 pm
বাড়তি মেদ কমাবে যৌন মিলন
১ দিন পূর্বে
2:14 pm
যৌন মিলন মধুর করতে
১ দিন পূর্বে
2:01 pm
এখনও পালিয়ে আসছে রোহিঙ্গারা
১ দিন পূর্বে
1:52 pm
২১ ফেব্রুয়ারিতে চার স্তরের নিরাপত্তা থাকবে: ডিএমপি কমিশনার
১ দিন পূর্বে
1:27 pm
সিংহীর কোলে আদরে বড় হচ্ছে হরিণ শাবক!
১ দিন পূর্বে
1:14 pm
ন্যূনতম আইনি সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছেন না খালেদা: ফখরুল
১ দিন পূর্বে
1:11 pm
স্ক্যানার মেশিনে ঢুকে পড়লেন চীনা নারী!
১ দিন পূর্বে
1:07 pm
৪জি যুগে বাংলাদেশের অভিষেক আজ
১ দিন পূর্বে
1:05 pm
স্মার্টফোনে পর্ন! সতর্ক থাকুন
১ দিন পূর্বে
1:04 pm
‘নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ফলাফল ভিন্ন হতে পারতো’
১ দিন পূর্বে
1:01 pm
সোশ্যাল মিডিয়ায় উত্তাপ ছড়াচ্ছে ক্যাটরিনার দুঃসাহসিক ছবি
১ দিন পূর্বে
1:00 pm
মমর ‘উল্টো পিঠে ভালবাসা’
এখনও ধরাছোঁয়ার বাইরে তনু হত্যাকারীরা

দেশব্যাপী আলোচিত কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের ইতিহাস বিভাগের ছাত্রী ও নাট্যকর্মী সোহাগী জাহান তনু হত্যাকান্ডের ১৬ মাস পূর্ণ হলো আজ বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই)। কিন্তু এ হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িতরা আজও ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়ে গেছে। দীর্ঘ এ সময়ে ঘাতকদের সনাক্ত কিংবা গ্রেফতার করতে পারেনি মামলার তদন্তকারী সংস্থা সিআইডি। মামলার তদন্তে দৃশ্যমান কোনো অগ্রগতিও নেই। এ নিয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তাও মিডিয়ায় মুখ খুলছেন না। এসব কথা বলে তনু হত্যার সুষ্ঠু তদন্ত ও ন্যায় বিচার পাওয়া নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেছে তনুর পরিবার। এ ব্যাপারে তারা প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপের দাবি জানিয়েছেন। সংশ্লিষ্ট সূত্র ও তনুর পুরবার সূত্রে জানা যায়, তনুর দুই দফা ময়নাতদন্তে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজের ফরেনসিক বিভাগ মৃত্যুর সুস্পষ্ট কারণ উল্লেখ না করে প্রতিবেদন দেওয়ায় ঘটনার রহস্য উৎঘাটন নিয়ে শুরু থেকেই সংশয় দেখা দেয়। ভরসা ছিল ডিএনএ রিপোর্ট। গত বছরের মে মাসে সিআইডি তনুর জামা-কাপড় থেকে নেওয়া নমুনার ডিএনএ পরীক্ষা করে ৩ জনের শুক্রাণু পাওয়ার কথা গণমাধ্যমকে জানিয়েছিল। হত্যার আগে তনুকে ধর্ষণ করা হয়েছিল এমন তথ্যও তারা নিশ্চিত হয়েছিল। পরে সন্দেহভাজনদের ডিএনএ মেলানোর (ম্যাচিং) কথা থাকলেও তা করা হয়েছে কিনা কিংবা ফলাফল কি- এ নিয়েও সিআইডি মুখ খুলছে না। তাই দীর্ঘ ১৬ মাসেও তনু হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িতদের শনাক্ত কিংবা গ্রেফতার করতে না পারা, সামরিক-বেসামরিক অর্ধশতাধিক ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা, এমনকি ডিএনএ পরীক্ষায় ৩ ধর্ষণকারীর শুক্রাণু পেলেও এ পর্যন্ত ডিএনএ মিলিয়ে ঘাতকদের সনাক্ত করতে না পারায় আলোচিত এ হত্যার বিচার পাওয়া নিয়ে তনুর পরিবারসহ সচেতন মহলে সংশয় দেখা দিয়েছে। তনুর মা আনোয়ারা বেগম বলেন, সেনানিবাসের মতো একটি এলাকা থেকে তনুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তাকে কারা মেরেছে দেশবাসী যা জানার তা জেনেছে, তনুর বাবা-ভাইয়ের ক্ষমতার দাপট থাকলে হয়তো চেষ্টা-তদবির করে মেয়ে হত্যার বিচার পেতাম, গরীবের জন্য আল্লাহ আছে। তিনি আরও বলেন, তনুর জন্য বুকটা যেন ভেঙ্গে যায়, শ্বাস-প্রশ্বাস বন্ধ হয়ে আসে। বিচার পাব এমন লক্ষ্মণও দেখি না। কার কাছে বিচার চাইব? সমবেদনা জানাতে এসে যারা আমাদেরকে ন্যায় বিচারের আশ্বাস দিয়েছিল তারাও এখন চুপচাপ, সিআইডিও এখন খবর নেয় না, বাসায় আসে না, ফোনও করে না। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও সিআইডি-কুমিল্লার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার জালাল উদ্দিন আহমেদ জানান, মামলাটির তদন্ত কার্যক্রম থেমে নেই, বিভিন্ন দিক খতিয়ে দেখা হচ্ছে, কিছু অগ্রগতিও আছে। এ বিষয়ে এর চেয়ে বেশী মন্তব্য করতে চাই না। উল্লেখ্য, কুমিল্লা সেনানিবাসের ভেতরের একটি জঙ্গল থেকে গত বছরের ২০ মার্চ রাতে কলেজ ছাত্রী সোহাগী জাহান তনুর লাশ উদ্ধার করা হয়। পরদিন তার বাবা কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের অফিস সহায়ক ইয়ার হোসেন বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে কোতয়ালী মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। থানা পুলিশ ও ডিবির পর গত বছরের ১ এপ্রিল থেকে মামলাটির তদন্তের দায়িত্ব পায় কুমিল্লা সিআইডি।