Rz Rasel
১ দিন পূর্বে
6:05 pm
রাবিতে স্থগিতকৃত দশম সমাবর্তন মার্চে
২ দিন পূর্বে
11:56 pm
‘মৃত্তিকা প্রতিবন্ধীবান্ধব সাংবাদিকতা অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন ভৈরবের সুমন মোল্লা
২ দিন পূর্বে
11:48 pm
ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা ২০১৮-এ অপো এফ ৫ বিজয়ীদের নাম ঘোষণা
২ দিন পূর্বে
11:43 pm
মোরেলগঞ্জে,শরণখোলায় কমিউনিটি ক্লিনিক কর্মীদের তিন দিনব্যাপী অবস্থান কর্মসূচি
২ দিন পূর্বে
11:39 pm
শ্রীমঙ্গলে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহের সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ
২ দিন পূর্বে
11:28 pm
তানোরে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা
২ দিন পূর্বে
11:23 pm
তানোরে শিশুদের শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন বিভাগীয় কমিশনার
২ দিন পূর্বে
11:16 pm
বৈষম্যহীন শিক্ষা ব্যবস্থা ও অসাম্প্রদায়িক,গণতান্ত্রিক দেশ গড়ার কারিগর ছিলেন শহীদ আসাদ
২ দিন পূর্বে
10:53 pm
প্রেমিকের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক ইনস্টাগ্রামে লাইভ, তারপর…
২ দিন পূর্বে
8:09 pm
এই কলগার্লের জন্যই নাকি পদচ্যুত হয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী
২ দিন পূর্বে
8:07 pm
২০ প্রেতাত্মার সঙ্গে ‘যৌন সম্পর্ক’ এই ব্রিটিশ যুবতীর!
২ দিন পূর্বে
7:40 pm
অন্তরঙ্গ সময়ে টিভির নেশায় বুঁদ প্রেমিকা, ফলাফল…!
২ দিন পূর্বে
5:58 pm
মা হচ্ছেন প্রীতি জিনতা!
২ দিন পূর্বে
5:33 pm
খরচ বাঁচাতে ৮ জোড়া প্যান্ট ও ১০ জামা পরে বিমানবন্দরে যুবক
২ দিন পূর্বে
5:22 pm
‘বিএনপির কোনো নীতি আদর্শ নেই’
২ দিন পূর্বে
5:19 pm
যে ৮টি উপকারে আসতে পারে ফিটকিরি
২ দিন পূর্বে
5:17 pm
অমিতাভ ও মাধুরীদের সারিতে সানি লিওন
২ দিন পূর্বে
5:10 pm
ভারত বিরাটের ওপর অতিরিক্ত নির্ভরশীল : রাবাদা
২ দিন পূর্বে
5:08 pm
অবশেষে ঢেকে দেওয়া হল দীপিকার উন্মুক্ত পেট (ভিডিও)
২ দিন পূর্বে
5:05 pm
আসামে ভূমিকম্পের আঘাত
২ দিন পূর্বে
5:00 pm
রেডিওতে বাংরেজি বন্ধের নির্দেশ দিলেন তারানা
২ দিন পূর্বে
4:50 pm
চলন্ত গাড়ির জানালার বাইরে টপলেস নারী! হঠাৎ…
২ দিন পূর্বে
4:46 pm
বিশ্বে প্রথমবারের মতো চালু হলো পুতুলের যৌনপল্লী!(ভিডিও)
২ দিন পূর্বে
4:43 pm
এবার সন্তানের জন্ম দেবে সেক্স ডল ‘সামান্তা’
২ দিন পূর্বে
4:34 pm
দুর্বল হৃদয়ের জন্য নয় এই ৫ মিনিটের ভিডিও !
যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচন : কার কত ব্যয়?

06-8 নির্বাচন মানেই অর্থের শ্রাদ্ধ। সেটা বাংলাদেশ কিংবা যুক্তরাষ্ট্র যেখানেই হোক। তবে আমাদের দেশের তুলনায় যুক্তরাষ্ট্রে এই খরচ অনেক বেশী। ভোটারদের মন জয়ে সেখানে নানাভাবে নির্বাচনী প্রচার চলে। ব্যয় হয় কোটি কোটি ডলার। আসন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে অংশ নিতে প্রধান দুটি রাজনৈতিক দল ডেমোক্রেটিক ও রিপাবলিকান পার্টির প্রার্থী বাছাই চলছে। দুই দলের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা এখন বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে চলমান প্রাইমারি নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। প্রচারণায় অর্থ ব্যয়ে তাঁদের করোরই কার্পণ্য নেই। কিন্তু এই বিপুল অর্থের জোগান আসছে কোত্থেকে? এই প্রশ্নের উত্তর খোঁজার চেষ্টা করেছে বিবিসি। বিবির তথ্যানুযায়ী কয়েকজন প্রার্থীর ব্যয় তুলে ধরা হলো। হিলারি ক্লিনটন ডেমোক্রেটিক দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী হিলারি ক্লিনটন তাঁর প্রচারে ব্যয় করছেন ১৩ কোটি ৪৪ লাখ ৩ হাজার ৬শ ৩৭ ডলার। তবে তার এই বিপুল ব্যয় নিয়ে অনেক প্রশ্নও উঠেছে। তার দলের অপর মনোনয়নপ্রত্যাশী বার্ণি স্যান্ডার্স প্রশ্ন তুলেছেন, এত অর্থ কোথায় পেলেন মিসেস ক্লিন্টন। বিবিসির তথ্য মতে, আইনজীবী, বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান ও ব্যাংকগুলো হিলারির নির্বাচনী প্রচারে অর্থায়ন করছে। এ ক্ষেত্রে ওয়াল স্ট্রিটের একটা বড় ভূমিকা রয়েছে। তাই স্যান্ডার্স বরাবরই যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতিতে ওয়াল স্ট্রিটের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। তিনি নির্বাচনী প্রচারে কোটি কোটি টাকার ছড়াছড়ির অবসান চান। আইনজীবী ও আইনবিষয়ক প্রতিষ্ঠানগুলো হিলারির নির্বাচনী প্রচারে ১ কোটি ১০ লাখ ডলার অর্থায়ন করেছে। এর মধ্যে ১০ লাখের বেশি ডলার এসেছে ব্যক্তি খাত থেকে। যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ সাতটি আইনি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ব্যক্তিরা এ অর্থায়ন করেছেন। এ ছাড়া বাণিজ্যিক ব্যাংক ও বিনিয়োগকারী শিল্পপ্রতিষ্ঠান তাঁর নির্বাচনী প্রচারে ৪০ লাখ ডলার অর্থায়ন করেছে। পাশাপাশি বিভিন্ন বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানও ছায়া ব্যাংক হিসেবে হিলারির নির্বাচনী প্রচারে অর্থায়ন করেছে। এ ধরনের প্রতিষ্ঠানগুলো ‘ছায়া ব্যাংক’ হিসেবে সম্ভবত কেবলমাত্র হিলারিকেই অর্থায়ন করেছে। এ কারণেই হিলারি এই প্রতিষ্ঠানগুলোকে গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। তিনি এমনও বলেছেন, দেশের অর্থনৈতিক সংকটের হাল ধরবে এই ব্যাংকগুলোই। বার্নি স্যান্ডার্স আরেক ডেমোক্রেট মনোনয়ন প্রত্যাশী বার্নি স্যান্ডার্স মনোনয়নের প্রচারে ব্যয় করছেন ৯ কোটি ৬৩ লাখ ১১ হাজার ৪শ ২৩ ডলার। তিনি মনোনয়নপ্রত্যাশীদের নির্বাচনী প্রচারে বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানের অর্থায়নের বিরুদ্ধে সোচ্চার। শুধু কথায় নয়, কাজেও তার প্রমাণ রেখেছেন। টারিং ফার্মাসিউটিক্যালের সাবেক প্রধান নির্বাহী মার্টিন সাকরেলির অর্থায়নের প্রস্তাব তিনি ফিরিয়ে দিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের সাধারণ জনগণের কাছ থেকে আর্থিক সহায়তা নিয়েছেন স্যান্ডার্স। স্যান্ডার্সের নির্বাচনী প্রচারে আরও একটি অদ্ভুত দল অর্থায়ন করছে। এটি হলো যুক্তরাষ্ট্রের কর্মহীন বা বেকার জনগোষ্ঠী। গত বছর তাঁর নির্বাচনী প্রচারে কর্মহীনেরা ১ কোটি ৪০ লাখ ডলার অর্থায়ন করেছেন। যুক্তরাষ্ট্রে সেবিকাদের সংগঠন ন্যাশনাল নার্সেস ইউনাইটেডও স্যান্ডার্সের নির্বাচনী প্রচারে অর্থায়ন করেছে। এই সংগঠনটি দিয়েছে ২০ লাখ ডলারেরও বেশি। এ ছাড়া বিভিন্ন সংগঠন ও সম্পদশালী ব্যক্তিরা তাঁকে অর্থায়ন করেছেন। ডোনাল্ড ট্রাম্প রিপাবলিকান দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারে ব্যয় ২ কোটি ৫৫ লাখ ২৬ হাজার ৩শ ১৯ ডলার। ট্রাম্প নিজেই কোটিপতি ব্যবসায়ী। তাই প্রচারে তিনি ছড়াচ্ছেন কোটি কোটি ডলার। ট্রাম্প অন্য কৌশলে প্রথমেই গণমাধ্যমের মনোযোগ কেড়েছেন। অন্যরা যেমন টিভিতে ঢালাওভাবে ব্যয়বহুল বিজ্ঞাপন দিয়ে মনোযোগ কাড়েন, সেভাবে না গিয়ে নির্বাচনী বার্তা পাঠিয়ে গণমাধ্যমের দৃষ্টি কাড়েন তিনি। এতে তহবিল জোগাড়ের বিষয়টি থেমে থাকেনি। জোগাড় হয়েছে আড়াই কোটি ডলার। টেড ক্রুজ নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট পদে রিপাবলিকান দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী টেড ক্রুজের ব্যয় ৫ কোটি ৪৬ লাখ ৬১ হাজার ৫শ ৬ ডলার। টেক্সাসের সিনেটর টেড ক্রুজ তার নিজের এলাকা থেকেই নির্বাচনী প্রচারের বেশির ভাগ অর্থ পেয়েছেন। টেক্সাসবাসী তার নির্বাচনী প্রচারে মোট ব্যয়ের ৪৩ শতাংশ অর্থায়ন করেছে। ওই এলাকার ব্যবসায়ী, তেল-গ্যাসসহ বিভিন্ন শিল্পপ্রতিষ্ঠান তাকে অর্থায়ন করেছে। এর মধ্যে জ্বালানি ব্যবসায়ী দুই ভাই ড্যান ও ফ্যারিস টেড ক্রুজের নির্বাচনী প্রচারণার জন্য ক্রুজকে দিয়েছেন ৫৯ হাজার ৫০ ডলার। এ ছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের পলিটিক্যাল অ্যাকশন কমিটি তাকে ১ কোটি ৫ লাখ ডলার অর্থায়ন করেছে। এই কমিটি বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রার্থীদের প্রচারে অর্থায়ন করে থাকে। দেশটির ডাক বিভাগ এবং সেখানে কর্মরত বিভিন্ন ব্যক্তিও ক্রুজের নির্বাচনী প্রচারে অর্থায়ন করেছে।