Rz Rasel
০ দিন পূর্বে
7:35 pm
গেইলের সেঞ্চুরিতে ঢাকাকে ২০৬ রানের বিশাল টার্গেট দিল রংপুর
০ দিন পূর্বে
4:07 pm
৯৯৯ কার্যক্রমের উদ্বোধন
০ দিন পূর্বে
1:27 pm
সিরাজগঞ্জে বীরমাতা রাজুবালার রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শেষ কৃতকার্য সম্পন্ন
০ দিন পূর্বে
10:34 am
ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে শপ আপের নতুন অ্যাড প্ল্যাটফর্ম
০ দিন পূর্বে
10:31 am
চুনারুঘাট রাজারবাজার পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আল আমিন
০ দিন পূর্বে
10:27 am
নবাবগঞ্জে গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল
০ দিন পূর্বে
10:24 am
২০ প্রেতাত্মার সঙ্গে ‘যৌন সম্পর্ক’ এই ব্রিটিশ যুবতীর (ভিডিও)
০ দিন পূর্বে
10:20 am
শুভেচ্ছায় ভাসছেন সদ্যবিবাহিত বিরাট-আনুশকা
০ দিন পূর্বে
10:19 am
জীবন বাঁচাবে ৯৯৯
০ দিন পূর্বে
10:15 am
১০ বছর বয়সী বালিকার কীর্তিতে হতবাক! (ভিডিও)
০ দিন পূর্বে
10:14 am
মাসে কোটি টাকা আয় এই শিশুর!
০ দিন পূর্বে
10:13 am
৬২ তলা ভবন থেকে পড়ে চীনা স্পাইডারম্যানের মৃত্যু
০ দিন পূর্বে
10:09 am
যেভাবে ফাইনালে রংপুর রাইডার্স
০ দিন পূর্বে
6:52 am
খান নন, খান পরিবারের অন্য এক সদস্যের সঙ্গে ক্যাটরিনা !
০ দিন পূর্বে
5:39 am
তৈমুর-আব্রাম একসঙ্গে অভিনয় করবে
০ দিন পূর্বে
5:39 am
ফরজ গোসল করা অসম্ভব হলে কী করবে?
০ দিন পূর্বে
12:17 am
সৌদি সরকার সিনেমা প্রদর্শনীতে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিচ্ছে !
০ দিন পূর্বে
12:07 am
আমি একজন সাধারণ ফুটবলার : ম্যারাডোনা
০ দিন পূর্বে
12:05 am
নিউইয়র্কের বাস টার্মিনালে হামলাকারী বাংলাদেশি আকায়েদ !
০ দিন পূর্বে
12:02 am
‘আগামী নির্বাচনে ২০০৮ সালের চেয়ে বেশি আসন পাবে আওয়ামী লীগ ‘
১ দিন পূর্বে
10:16 pm
রংপুর যোগ্য ফাইনালিস্ট, তারাই প্রমাণ করল
১ দিন পূর্বে
10:00 pm
ফুচকা আটকে প্রাণ গেল এক ব্যক্তির
১ দিন পূর্বে
9:56 pm
আনুশকা-কোহলির বিবাহোত্তর সংবর্ধনা ২৬ ডিসেম্বর
১ দিন পূর্বে
9:48 pm
শুভ পরিণয় কোহলি ও আনুশকার
১ দিন পূর্বে
9:45 pm
দাম কমছে সোনার
১২শ বর্ষী মন্দিরে হিন্দু-বৌদ্ধ নিদর্শন

দিনাজপুরে মাটির ঢিবি খনন করে বৌদ্ধ মন্দিরকে হিন্দু মন্দিরে রূপান্তর করার প্রথম প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন আবিষ্কার করেছেন একদল গবেষক। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক স্বাধীন সেনের নেতৃত্বে আবিষ্কৃত এই মন্দির তৎকালীন বরেন্দ্র অঞ্চলে বৌদ্ধ ধর্ম চর্চার ওপর পরবর্তীকালের হিন্দু শাসকদের রাজনৈতিক ও ধর্মীয় আধিপত্যের সরাসরি নিদর্শন বলে ধারণা করা হচ্ছে। খননকারীরা বলছেন, মন্দির দুটির নির্মাণকাল ৮ম থেকে ১১শ শতকের কোনো এক সময়কার। এর আগে বাংলাদেশে বৌদ্ধ স্তূপকে হিন্দু মন্দিরে রূপান্তরিত করার উদাহরণ পাওয়া গেলেও, বৌদ্ধ মন্দিরকে হিন্দু মন্দিরে রূপান্তরিত করার নির্দশন এটাই প্রথম বলে দাবি করছেন তারা। দিনাজপুরের সেতাবগঞ্জ উপজেলায় আবিস্কৃত এ মন্দির সংলগ্ন স্থান থেকে প্রথমবারের মত শারীরিক স্তূপের নিদর্শনও পাওয়া গেছে। গৌতম বুদ্ধের দেহাবশেষ দিয়ে স্তুপ নির্মাণ করার ঐতিহ্য মৌর্য সম্রাট অশোক সর্বপ্রথম শুরু করেন। এরই ধারাবাহিকতায় পরবর্তীকালে বৌদ্ধ ধর্মীয় গুরু ও গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির দাহ করা দেহাবশেষের উপরে স্তূপ নির্মাণ করার ঐতিহ্য চালু হয়। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের একটি দল অধ্যাপক স্বাধীন সেন ও অধ্যাপক সৈয়দ মোহাম্মদ কামরুল আহসানের পরিচালনায় গত তিন মাসেরও বেশি সময় ধরে খনন চালিয়ে আসছেন। দলটি একই উপজেলার মাহেরপুরে প্রায় এক হাজার বছর পুরানো একটি হিন্দু মন্দির আবিষ্কার করে। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে এই খনন চলছে। অধ্যাপক স্বাধীন সেন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, ২০১২ সাল থেকে তারা সেতাবগঞ্জ (বোঁচাগঞ্জ) এলাকায় আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে করছেন। এ সময় প্রায় ১২৬ টি আর্কিওলজিক্যাল সাইট শনাক্ত করা হয়। সেতাবগঞ্জের রণগাঁও ইউনিয়নের বাসুদেবপুর ওয়ার্ডের ইটাকুড়া ঢিবি নামের প্রত্নস্থানে প্রায় ৩,৬০০ বর্গ মিটারেরও বেশি স্থানে খনন পরিচালনা করে মন্দির দুটো পাওয়া যায়। মন্দির দুটো পাওয়ার পরে প্রাচীন ভারতীয় স্থাপত্য বিষয়ে বিশেষজ্ঞ কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন অধ্যাপক দীপক রঞ্জন দাশ, বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্নতত্ত্বের প্রাক্তন অধ্যাপক অরুণ নাগ ও কার্ডিফ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক অ্যাডাম হার্ডির সঙ্গে আলোচনা করে অধ্যাপক সেন হিন্দু মন্দিরটিকে শনাক্ত করেন। পুরো মন্দিরটি পূর্বে, উত্তরে ও দক্ষিণে বেষ্টনী প্রাচীর দিয়ে ঘেরা ছিল। এই প্রাচীর ত্রি-রথ অভিক্ষেপ বিশিষ্ট। এই ত্রি-রথ অভিক্ষেপ হিন্দু মন্দিরের স্থাপত্য শৈলীর অন্যতম বৈশিষ্ট্য বলে তিনি জানান। বেষ্টনী প্রাচীর ও গর্ভগৃহের মধ্যবর্তী স্থানে পূর্ববর্তী বৌদ্ধ মন্দিরের দেয়াল ও ভরাট করা মাটির উপরে ৩০-৪০ সেমি পুরু মেঝে রয়েছে। অধ্যাপক সেন বলেন, “মন্দিরের প্রধান প্রবেশদ্বার পশ্চিম দিক দিয়ে ছিল। স্থানীয় মানুষজনের বাড়িঘর বানানোর কারণে ইট তুলে নিয়ে যাওয়ায় আয়তক্ষেত্রকার প্রবেশদ্বারটির মূল নির্মাণশৈলী বোঝা কঠিন। তবে সম্ভবত এখানে বড় সিঁড়ি ছিল। “পরবর্তীকালে হিন্দু মন্দিরে নির্মাণ উপকরণের পুনর্ব্যবহারের কারণে বৌদ্ধ মন্দিরটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। মন্দিরটি একটি গর্ভগৃহ ও একটি মণ্ডপের সমন্বয়ে গঠিত। পূর্ববর্তী মন্দিরের গর্ভগৃহের উপরেই পরবর্তী মন্দিরের গর্ভগৃহ নির্মিত হয়। এর প্রবেশপথও পশ্চিম দিকে ছিল।” প্রাচীন মন্দির সাধারণত দুটি প্রধান অংশের সমন্বয়ে নির্মিত হতো। এর মধ্যে যে স্থানটিতে প্রতিমা রাখা হতো সেটিকে বলা হয় গর্ভগৃহ, আর যে স্থানে দাঁড়িয়ে পূজো-অর্চনা করা হতো সেটিকে বলা হয় মণ্ডপ।