জনপ্রিয় সংবাদ

x

ভূতুড়ে অশ্বারোহীর খপ্পরে এবার ব্যোমকেশ

রবিবার, ২০ নভেম্বর ২০১৬ | ১০:৪৯ অপরাহ্ণ | 336 বার

“গ্রামের নাম বাঘমারি। রেল-লাইনের ধারেই গ্রাম, কিন্তু গ্রাম হইতে স্টেশনে যাইতে হইলে মাইলখানেক হাঁটিতে হয়। মাঝখানে ঘন জঙ্গল।… স্টেশনের নাম সান্তালগোলা।“

এই সান্তালগোলাতেই ভূতুড়ে অশ্বারোহীর পাল্লায় পড়ল ব্যোমকেশ, অজিত আর সত্যবতী। যার কয়েক ঝলক দেখা গেল অরিন্দম শীলের নতুন ব্যোমকেশ-ছবি ‘ব্যোমকেশ পর্ব’র ট্রেলারে।

এবং, ট্রেলার মুক্তি পেতে না পেতেই আলোড়িত চারদিক! ব্যোমকেশকে নিয়ে এতটাও অ্যাকশন-প্যাকড ছবি এর আগে বাংলায় তৈরিই হয়নি! ট্রেলারে দেখা যাচ্ছে, মশালা ছবির নায়কদের মতো ব্যোমকেশ মেরে পাট-পাট করে দিচ্ছে একদল লোকজনকে। পলাতক আততায়ীকে ধরে ফেলছে স্রেফ ল্যাসো বা দড়ির ফাঁদ ছুড়ে! এছাড়া সঙ্গে তো রয়েছেই ভূতুড়ে অশ্বারোহীর উপদ্রব। এ যেন ঠিক শরীরী আর অশরীরীর দ্বন্দ্ব!

শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়ের টানটান ব্যোমকেশ-কাহিনি ‘অমৃতের মৃত্যু’ নিয়ে ছবিটি তৈরি করেছেন অরিন্দম শীল। ছবিতে ব্যোমকেশের চরিত্রে অভিনয় করেছেন আর চট্টোপাধ্যায়, অজিত ঋত্বিক চক্রবর্তী, সত্যবতী সোহিনী সরকার। একটি বিশেষ নারীচরিত্রে রয়েছেন সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়া মীর, রজতাভ দত্ত, কৌশিক সেন, রুদ্রনীল ঘোষ, শুভাশিস মুখোপাধ্যায়- দুর্ধর্ষ অভিনেতাদের জড়ো করে এই ছবিকে এক অন্যমাত্রায় নিয়ে গিয়েছেন পরিচালক।

bomkesh

প্রয়োজনমতো ছবির কাঠামোয় শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায় রচিত কাহিনির রদবদল যে হয়নি, তা নয়। ‘অমৃতের মৃত্যু’র শুরুর দিকে, ঠিক তার চতুর্থ অনুচ্ছেদে লিখছেন শরদিন্দু- “ব্যোমকেশ ও আমি যে-কর্ম উপলক্ষে সান্তালগোলায় গিয়া কিছুকাল ছিলাম”, সেই সঙ্গ ও সঙ্গীর সংখ্যা ছবিতে বাড়িয়ে তুলেছেন পরিচালক। সত্যবতীকেও দেখা যাচ্ছে ছবির কাহিনিতে, মূল কাহিনিতে সে না থাকলেও। দেখা যাবে এক বাঈজির চরিত্রও!

সে সবের প্রয়োজন ছিল কি ছিল না- তা জানা যাবে ছবি মুক্তি পেলে। তার আগে নিচের ভিডিওয় দেখে নিন ছবির কয়েক ঝলক। নিঃসন্দেহে গায়ে কাঁটা দেবে!

ঢাকা সফরে ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলস গ্রুপ ম্যানেজমেন্ট টিমের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা

Development by: webnewsdesign.com