জনপ্রিয় সংবাদ

x

বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসব শুরু

বৃহস্পতিবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৬ | ১:৫৬ পূর্বাহ্ণ | 105 বার

বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসব শুরু

সব প্রতিক্ষার অবসান ঘটিয়ে আজ সন্ধ্যায় শুরু হচ্ছে ‘বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসব’। আর্মি স্টেডিয়ামে পঞ্চমবারের মতো আয়োজিত এ অনুষ্ঠান শুরু হবে আজ সন্ধ্যায়। পাঁচ দিনের এই উৎসব উৎসর্গ করা হয়েছে সব্যসাচী প্রয়াত লেখক সৈয়দ শামসুল হককে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উৎসবের উদ্বোধন করবেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত চলবে সুর-তাল-লয়ের খেলায় বৈচিত্র্যময় ধ্রুপদী পরিবেশনা।

উৎসবে অংশ নেবেন বাংলাদেশের ১৬৫ জন শিল্পী। উদ্বোধনী পর্বে নৃত্য শিক্ষক শর্মিলা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রচনা ও নির্দেশনায় নৃত্যনন্দন দলের প্রায় ৬০ শিল্পী রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মূল গান ও ভাঙা গানে মণিপুরী, ভরতনাট্যম, ওড়িশি ও কত্থক রীতির রূপায়ণ পরিবেশন করবেন।

প্রথম দিনের পরিবেশনায় অংশ নেবেন বাংলাদেশের ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জন্ম নেয়া কিংবদন্তি শিল্পী আলাউদ্দিন খাঁর বংশধর ওস্তদ আশীষ খাঁ। পুরুষ ও নারী কণ্ঠের ভিন্ন স্তরের রাগে পরিবেশিত জাসরাঙ্গি শীর্ষক যুগলবন্দি পরিবেশনায় অংশ নেবেন জয়পুর আত্রোলির বিদূষী অশ্বিনী ভিদে ও মেওয়াতি ঘরানার পন্ডিত সমঞ্জীব অভয়ঙ্কর।

পশ্চিমা ও ঢংয়ে বেহালা বাজিয়ে শোনাবেন পদ্মভূষণপ্রাপ্ত ড. এল সুব্রহ্মণ্যন। এবার উৎসবে প্রথমবারের মতো শোনা যাবে ম্যান্ডোলিনের সুর। বাঁশি ও ম্যান্ডোলিনের যুগলবন্দি পরিবেশন করবেন গ্রামি অ্যাওয়ার্ডের জন্য মনোনীত বংশীবাদক রনু মজুমদার ও ইউ রাজেশ।

উৎসবের দ্বিতীয় দিন মোহাম্মদ শোয়েবের নির্দেশনায় তার শিক্ষার্থীরা পরিবেশন করবেন পরীক্ষামূলক রাগসংগীত। উৎসবের চতুর্থ দিনে কত্থক নৃত্য পরিবেশন করবেন মুনমুন আহমদ ও তার দল।

উৎসবের শেষ দিন প্রিয়াঙ্কা গোপের একক কণ্ঠের খেয়ালের সঙ্গে থাকবে তার নির্দেশিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত বিভাগের শিক্ষার্থীদের পরিবেশনা। কনিষ্ঠতম শিল্পী হিসেবে উৎসবে অংশ নেবে বেঙ্গল পরম্পরা সংগীতালয়ের শিক্ষার্থী ইসরাত ফুলঝুরি খান। সাত বছরের এই শিল্পী সেতার বাজিয়ে শোনাবে।

সংগীত আসরে আরো অংশ নেবেন প্রবাদপ্রতিম বাঁশরিয়া পন্ডিত হরিপ্রসাদ চৌরাসিয়া। শোনা যাবে পন্ডিত শিবকুমার শর্মার মোহনীয় সন্তুরের সুর। কণ্ঠসংগীত ও বাদ্যের নানা পরিবেশনা নিয়ে হাজির হবেন প-িত উলহাস কশলকর, ওস্তাদ রশিদ খান, পন্ডিত কুশল দাস।

শোনা যাবে বিশিষ্ট সেতার পন্ডিত সঞ্জয় বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেতারের বাজনা এবং ফরুকাবাদা ঘরানার খ্যাতিমান তবলিয়া পন্ডিত অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায় ও তার ছেলে অনুব্রত চট্টোপাধ্যায়ের পরিবেশনা।

আয়োজকরা জানান, এবারের উৎসবে প্রাধান্য পাবে নবীন শিল্পীদের উপস্থিতি ও একাধিক যৌথ পরিবেশনা।

বালিয়াডাঙ্গীতে বেগম রোকেয়া দিবস পালিত

Development by: webnewsdesign.com