জনপ্রিয় সংবাদ

x

বাংলাদেশের পাসপোর্টকে বিশ্বের সবচেয়ে দামি পাসপোর্ট বানানোর ১০টি মেড ইজি পদ্ধতি।

বুধবার, ০৬ মার্চ ২০১৯ | ২:৩০ অপরাহ্ণ | 197 বার

বাংলাদেশের পাসপোর্টকে বিশ্বের সবচেয়ে দামি পাসপোর্ট বানানোর ১০টি মেড ইজি পদ্ধতি।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক নাগরিকত্ব ও পরিকল্পনা বিষয়ক ফার্ম হেনলি পাসপোর্ট সূচকের তথ্য অনুযায়ী ৯৭ নম্বর র‍্যাংকিংয়ে রয়েছে বাংলাদেশের পাসপোর্ট। এরই মধ্যে বাংলাদেশের পাসপোর্টকে বিশ্বের সবচেয়ে ‘দামি’ পাসপোর্ট করে তুলতে কিছু সরকারি উদ্যোগও দেখা যাচ্ছে ঢাকার রাস্তায়।

 

পাসপোর্ট অফিসে ঘোরাফেরার সময় আমাদের পাসপোর্ট গবেষণা দলের নজরে আসে বিশ্বের ‘সর্বচেয়ে’ দামি ‘পাসর্পোট’ হওয়ার এই সংকল্পটি। আমরা তাই ভেবে বের করেছি বাংলাদেশের পাসপোর্টকে বিশ্বের সবচেয়ে দামি পাসপোর্ট করে তোলার কয়েকটি মেড ইজি পদ্ধতি! দেখুন, কত সহজেই আমরা দামি পাসপোর্টের মালিক হতে পারি!

 

9

১# পৃথিবীর কোনো দেশের পাসপোর্টে বিক্রয় মূল্য লেখা থাকে না৷ বাংলাদেশের পাসপোর্টে মূল্য লিখে দেয়া যেতে পারে কয়েক হাজার/লক্ষ/কোটি টাকা। তাহলেই বিশ্বের সবচাইতে দামি পাসপোর্ট হয়ে যাবে বাংলাদেশের পাসপোর্ট।

২# সাধারণ কাগজে না করে এই পাসপোর্ট দামি আর্ট বা ফয়েল পেপারে ছাপানো যেতে পারে। সাথে দুই পাশে জরির কাজ করানো থাকবে। সেলাইয়ের ডিজাইনও থাকতে পারে। তখন পাসপোর্ট সবচে’ দামি না হয়ে উপায় থাকবে না।

৩# গরু মার্কা ঢেউটিনের বিজ্ঞাপনে আবুল হায়াত বলেছে, জিনিস যেইটা ভালো দাম তার একটু বেশিই। তাই পাসপোর্ট দামি বানানোর জন্য কাগজের বদলে গরু মার্কা ঢেউটিনের গায়ে পাসপোর্ট ছাপানো যেতে পারে। তখন স্লোগান দেয়া যাবে, ‘পাসপোর্ট যেইটা ভালো, দাম তার সবচাইতে বেশি।’

10

৪. পাসপোর্টের নাম চেঞ্জ করে আমরা গোল্ডেন এ প্লাস পোর্ট করে দিতে পারি। আর কে না জানে, নরমাল পাস থেকে গোল্ডেন প্লাসের দাম কত বেশি। তাহলেই হয়ে গেল সবচাইতে দামি পাসপোর্ট আই মিন ‘গোল্ডেন প্লাসপোর্ট’।

৫# মানুষ বিদেশ থেকে লুকায়ে লুকায়ে সোনার বার নিয়ে আসে। আমরা তার বদলে নিজেরাই পাসপোর্টের মধ্যে একটা সোনার বার অ্যাটাচ করে দিতে পারি। পৃথিবীর আর কোনো পাসপোর্টে এত দামি জিনিস পাওয়া যাবে না। তাহলে কাদের পাসপোর্ট সবচাইতে দামী হলো?

৬# আমরা নতুন করে পাসপোর্ট না ছাপিয়ে বৃটিশ আমলের পাসপোর্ট আবার রিনিউ করে ইউজ করতে পারি। পুরাতন বা এন্টিক জিনিসের দামই তো সবচেয়ে বেশি হয়।

৭# আমাদের পাসপোর্টে গীতাঞ্জলি থেকে কবিতার লাইন লিখে রাখতে পারি। তাহলে বৈষয়িক দামের চাইতে বেশি শৈল্পিক দামও হয়ে গেল পাসপোর্টের।

৮# পাসপোর্ট দেয়ার আগে সকলের শরীর থেকে অল্প একটু পরিমাণ রক্ত নেয়া বাধ্যতামূলক করা হবে। তখন আমরা বলব আমরাই একমাত্র জাতি যারা পাসপোর্টের জন্য রক্ত দিয়েছি বা আমাদের পাসপোর্ট রক্ত দিয়ে কেনা। সেক্ষেত্রে অটোমেটিক বাংলাদেশের পাসপোর্ট বিশ্বের সবচাইতে দামি পাসপোর্ট হয়ে যাবে।

৯# একটা ঘরোয়া বিশ্বকাপ পাসপোর্ট টুর্নামেন্টের আয়োজন করা যেতে পারে। যেখানে বিজয়ী দলকে দেয়া হবে বাংলাদেশের পাসপোর্ট। তখন সবাই এমনিই জেনে যাবে যে বাংলাদেশের পাসপোর্ট বিশ্বের সবচাইতে বেশি দামি।

১০# এতোকিছু করার আসলে কোনো দরকার নাই। বাংলাদেশের পাসপোর্ট এমনিতেই বিশ্বের সবচাইতে দামি পাসপোর্ট। বিশ্বাস হলো না? আচ্ছা শুনেন। পৃথিবীর সব দেশে পাসপোর্ট নির্দিষ্ট ফি দিয়েই নিতে হয়। আমরাই একমাত্র দেশ যাদের পাসপোর্ট পেতে এক্সট্রা চা খাওয়ার টাকা দিতে হয় পুলিশদের। এক্সট্রা এই খরচ অন্য কোনো দেশে নেই। বেশি খরচ বিবেচনায় আমাদের পাসপোর্ট তাই এমনিই বিশ্বের সবচাইতে দামী পাসপোর্ট।

মৌজা বদল ও জাল দলিলে জমি আত্মসাৎ ! জড়িত দুই সাংবাদিক

Development by: webnewsdesign.com